চট্টগ্রাম ও রংপুরে দুর্ঘটনায় নিহত ৪

বাংলারজমিন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার
চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলায় চারিয়া বুড়ির পুকুর পাড় এলাকায় সিএনজি অটোরিকশা ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো দুইজন। বৃহসপতিবার দিনগত রাত ১২টার পর এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা ফটিকছড়ির নানুপুর গ্রামের মো. ইদ্রিস মিয়ার পুত্র মো. নুরুল হুদা (৪৫) ও একই গ্রামের মো. রফিকের পুত্র মো. আবু তৈয়ব (১৫)। তারা অটোরিকশার যাত্রী ছিলেন বলে জানান হাটহাজারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বেলাল উদ্দিন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর।
ওসি জানান, দুর্ঘটনার পর মাইক্রোবাসের চালক ও হেলপার পালিয়ে গেছে। দমড়ে-মুচড়ে যাওয়া অটোরিকশা উদ্ধার ও মাইক্রোবাসটি আটক করা হয়েছে। আমাদের হাটহাজারী প্রতিনিধি আবু শাহেদ জানান, বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ১২টার পর চট্টগ্রামমুখী একটি মাইক্রোবাস ও ফটিকছড়িমুখী অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষ ঘটে।
এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এরমধ্যে চাপা পড়ে মো. নুরুল হুদা ঘটনাস্থলে নিহত হন। এ সময় অটোরিকশায় থাকা আরো তিন যাত্রী গুরুতর আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে দ্রুত হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে মো. আবু তৈয়ব মারা যায়। আহত অপর দুইজনকে চিকিৎসা দেয়া হলেও শুক্রবার ভোরে আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানান চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক জহিরুল ইসলাম।
স্টাফ রিপোর্টার, রংপুর থেকে জানান, মুখোমুখি দুই বাসের সংঘর্ষে আট জন নিহতের ঘটনার ১৩ দিনের মাথায় আবারো রংপুরে বাস দুর্ঘটনায় এক নারীসহ দুইজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১২ জন। আহতদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল দুপুর সোয়া ১২টার দিকে নগরীর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত দুই পথচারী হলেন মিঠাপুকুর উপজেলার আফজালপুর গ্রামের গোলাম মোস্তফার স্ত্রী হাসিনা বেগম (৫৫) ও রংপুর নগরীর বড়বাড়ি হিন্দু পাড়ার যোগেশ চন্দ্রের পুত্র দুলাল চন্দ্র (৪৫)। প্রত্যক্ষদশী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, এমকে পরিবহনের (রংপুর-জ-০৪-০০৩১) চালক বদরগঞ্জ রোড থেকে বের হয়ে নবাবগঞ্জ যাওয়ার উদ্দেশ্যে টার্মিনাল মোড়ে গাড়িটি ঘুরিয়ে নেয়। এ সময় বেপরোয়া গতিতে আসা গাইবান্ধাগামী মায়ের আশির্বাদ পরিবহন (ঢাকা মেট্রো-জ-১৪-১০৮৬) নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এমকে পরিবহনকে ধাক্কা দেয়। মুহূর্তেই এমকে পরিবহন গাড়িটি দুমড়ে মুচড়ে উল্টো যায়। এতে ঘটনাস্থলে এক নারীসহ দুই জন মারা যায়। আহত হয় অন্তত ১২ জন। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে এমকে পরিবহনের ভেতর থেকে নিহতেদের লাশ ও আহত যাত্রীদের উদ্ধার করেন। পরে আহতদের অ্যাম্বুলেন্সে করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘হামলা চালিয়ে পুলিশ নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করছে’

স্পিকারের ঘোষণা: পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছেন রাজাপাকসে

বিনা উস্কানিতে পুলিশের ওপর হামলা:ডিসি মতিঝিল

একপক্ষ নির্বাচন করবে, আর আমরা আদালতে আসবো তা হতে পারে না

ছররা গুলির স্প্লিন্টারে আহত মানবজমিন প্রতিবেদক রুদ্র মিজান

‘নয়া পল্টনে সরকারের পরিকল্পিত হামলা’

ফের হেলমেট বাহিনী!

গণভবন ঘিরে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ঢল

রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা ক্ষমার অযোগ্য

তৃতীয় দিনেও বিএনপির মনোনয়নপত্র কিনতে উপচে পড়া ভিড়

পশ্চিমবঙ্গের নাম বাংলা করা নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের আপত্তি

সরকারী টাকায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচার বন্ধের দাবি বিএনপির

২৮ বছর বয়সেই ফোর্বস ম্যাগাজিনে নাম!

ট্রেন চলাচল বন্ধ

কক্সবাজারে উজ্জ্বীবিত বিএনপি

ডিসেম্বরে শুনানি শেষে চূড়ান্ত রায় শ্রীলঙ্কা সুপ্রিম কোর্টের