খুব প্রয়োজন বিআরটিসিকে শক্ত করে দাঁড় করানো

ফেসবুক ডায়েরি

রানা ভূঁইয়া | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:০৩
সময় বড় ধন। সেই জন্যই সময়ের কাজ সময়ে করতে হয়। আর রাষ্ট্রীয় বিষয় তো আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ। যুগের পর যুগ রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানগুলোকে পরিকল্পিতভাবে ধ্বংসের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়েছে- শুধু মাত্র জবাবদিহিতার অভাবে। পরিবহনের নৈরাজ্যে মনে হচ্ছে অসহায় সরকার। আজ যদি সরকারের হাতে পর্যাপ্ত বিআরটিসি থাকতো তাহলে সরকারকে বিচলিত হতে হতো না। সবচেয়ে জরুরি বিষয় হলো- সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে শক্তভাবে দাঁড় করানো। ঢাকার শহরের পরিবহন ব্যবস্থার পুরোটাই বিআরটিসির মাধ্যমে সরকারের নিয়ন্ত্রণে নেয়া উচিত।
শহরের সব রোডে বিআরটিসি গাড়ি চলবে- এতে বিশৃঙ্খলা কমে যাবে, দুর্ঘটনাও কমে যাবে। সরকারের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নেও সুবিধা হবে। জনগণ উপকৃত হবে। প্রয়োজনীয় সংখ্যক বিআরটিসি যা শুধু শহরেই সার্ভিস দিয়ে যাবে। প্রয়োজনে মহিলাদের জন্য আলাদা, ছাত্রছাত্রীদের জন্য আলাদা বিআরটিসির ব্যবস্থা করা যেতে পারে। এতে কথায় কথায় ধর্মঘট হবে না। এতে কোনো প্রভাবশালীর কাছে জিম্মি হতে হবে না। পুঁজিবাদের দৌরাত্ম্য কমে যাবে। পরিবহন স্বাভাবিকভাবে চলবে। বিআরটিসির ড্রাইভার অত্যন্ত দক্ষ। ধীরে ধীরে শহরের পুরো পরিবহনের নিয়ন্ত্রণ বিআরটিসিকে দিয়ে পরিচালনা করতে পারলে এ ধরনের সংকট থেকে পরিত্রাণ পাবে সরকার ও জনগণ। জনগণের জীবনযাত্রার ব্যয়ও কমে যাবে। নানা ধরনের গণপরিবহন যে নামেই আসুক না কেন- জনগণের উপকারে আসবে না। কারণ এর নিয়ন্ত্রণ চলে যায় বিশেষ শ্রেণির লোকদের হাতে। তারা সরকার ও জনগণকে জিম্মি করে ফেলে।
দূরপাল্লার গাড়ি বেসরকারি যেভাবে চলছে সেইভাবেই চলতে পারে। কিন্তু নগর পরিবহন অবশ্যই সরকারের নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে- তা না হলে সরকারকে বারবার ক্রাইসিস মোকাবিলা করতে হবে।
সব পরিবহন ব্যবস্থা ঢেলে সাজাতে হবে। পুরাতন ফিটনেসবিহীন গাড়ি দিয়ে দুর্ঘটনা কমানো যাবে না।
বিআরটিসির তদারকি বাড়িয়ে দিন- পর্যাপ্ত গাড়ির ব্যবস্থা করুন। দুর্ঘটনা কমে যাবে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মসজিদ-উল নববীর ইমাম কারাগারে ‘মারা গেছেন’

জনগণের আস্থার মর্যাদা সমুন্নত রাখতে হবে

ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে ভোট ২৮শে ফেব্রুয়ারি

এমন মৃত্যু আর কত?

এক কিংবদন্তির প্রস্থান

ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির ১০ কমিটি

স্পাইসগার্ল টি-শার্ট এবং বাংলাদেশের গার্মেন্ট খাত

ইভিএমের কারচুপি জেনে ফেলায় খুন হন বিজেপি নেতা!

মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে শাহবাগে ফের অবরোধ

ইজতেমা নিয়ে আদালতে আসা লজ্জাকর

তিনি সজ্জন, ভালো মানুষ

দেশে গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একসঙ্গে এগিয়ে যাবে- প্রধানমন্ত্রী

সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে চান ব্যারিস্টার মৌসুমী কবিতা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আফজালের সব সম্পদ জব্দের নির্দেশ

মির্জাপুরে বিএনপির ৪০ নেতাকর্মী কারাগারে

মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সুবিধা আরো বাড়লো