সিলেটে পেশাজীবীদের সঙ্গে মুক্তাদিরের মতবিনিময়

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার
‘বেগম খালেদা জিয়াকে কারামুক্ত এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে হবে। জনগণ ভোট দেয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে। জনগণের ভোটাধিকার নিশ্চিত করতে হলে ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। গণতন্ত্রমুক্ত করতে হলে বিএনপিকে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে। এর ব্যতিক্রম হলে দেশ ও জনগণকে চরম মূল্য দিতে হবে।’ গতকাল বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদিরের আহ্বানে পেশাজীবীদের মতবিনিময় সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। পেশাজীবীনেতৃবৃন্দ বলেন, কঠোর কর্মসূচি দিয়ে সরকারকে সহায়ক সরকারের মাধ্যমে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি আদায় করে দেশনেত্রীর আকাশচুম্বী জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে গণতন্ত্রকে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে হবে। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন সিলেট পেশাজীবী পরিষদের সভাপতি বিশিষ্ট চিকিৎসক বিএমএ’র সাবেক কেন্দ্রীয় সহসভাপতি ডাক্তার শামীমুর রহমান। বক্তারা সিলেট-১ আসনে ইতিহাস-ঐতিহ্যের কথা উল্লেখ করে সঠিক প্রার্থী নির্বাচনের জন্য আহ্বান জানান।
তারা বলেন, জনগণকে এখই ম্যাসেজ দিতে হবে আমরা নির্বাচনে যাচ্ছি, যাতে ভোটাররা জেগে উঠতে পারেন। বক্তারা জনগণের কাছে খন্দকার মুক্তাদিরকে গ্রহণযোগ্য প্রার্থী হিসেবে উল্লেখ্য করে বলেন, তার মতো শিক্ষিত সজ্জন ব্যক্তিকে প্রার্থী করতে পারলে সিলেট ১ আসন পুনঃরুদ্ধার হবে। মতবিনিময় সভাটি পরিচালনা করেন বদরুদ্দোজা বদর। আলোচনায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ শাখার পেশাজীবী নেতৃবৃন্দ অংশ নেন। অন্যদের মাঝে বক্তব্য দেন প্রফেসর ড. সাজেদুল করিম, প্রফেসর এম রাশেদ হাসনাত, প্রফেসর এম সিদ্দিকুল ইসলাম, প্রফেসর ইকবাল আহমেদ, প্রফেসর নিজাম উদ্দিন, প্রফেসর মুজ্জামেল হক, অধ্যক্ষ নিজাম উদ্দিন তফাদার, প্রফেসর ড. এমদাদুল হক, প্রফেসর মাসুদুর রহমান, প্রফেসর তাজউদ্দিন, প্রফেসর ইসমাঈল, প্রফেসর আমিনুল ইসলাম, প্রফেসর হোসেন আল-মামুন, প্রফেসর এম রেজাউল করিম, প্রফেসর আ.ফ.ম জাকারিয়া, প্রফেসর আতাউর রহমান, প্রফেসর মতিয়া রহমান, প্রফেসর পাবেল শাহরিয়ার, প্রফেসর শামিউল হাসান তালুকদার, প্রফেসর মনজুর-উল হায়দার, সাংবাদিক খালেদ আহমদ, অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন, প্রফেসর মামুন, প্রফেসর বেলাল সিকদার, কৃষিবিদ খছরু মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, জহিরুল ইসলাম, নিয়ামত উল্লাহ, গোলাম রসুল, অধ্যাপক মো. আবুল বায়েছ, শিক্ষক সমিতির নেতা আব্বাছ আলী। বিএনপি নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসেইন, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল কাহির চৌধুরী, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়ছল, মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আজমল বখত চৌধুরী সাদেক প্রমুখ। সমাপনীর বক্তব্যে খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির বলেন, বিএনপি যেকোনো সময়ের চেয়ে এখন অনেক বেশি ঐক্যবদ্ধ। দলের জন্য পেশাজীবীদের মতামত ও পরামর্শ অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আপনাদের পরামর্শ নিয়ে দলের কর্মসূচিকে আরো সমৃদ্ধ করা হবে। তিনি বলেন, সিলেটের বিএনপি এখন ঐক্যবদ্ধ বলেই সিটি নির্বাচনে আমরা আওয়ামী লীগকে পরাজিত করেছি। সংসদ নির্বাচনেও আমরা ঐক্যবদ্ধ থাকবো। এটা কোনো ব্যক্তিগত বিষয় নয়, এটা দেশ ও জাতীর স্বার্থে দলীয় সিদ্ধান্তে হবে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

তারা কেন এত উদ্বিগ্ন হয়ে উঠছেন?

সিনহার বই নিয়ে বাহাস

কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রথম দিককার চিঠি

নিউ ইয়র্কে দুটি অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

পবিত্র আশুরা আজ

তারুণ্যের ব্যর্থতায় লজ্জার হার

খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে

মানবাধিকার ও নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে দুই সংস্থার উদ্বেগ

বাম জোটের কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত অর্ধশত

বিলে স্বাক্ষর না করতে প্রেসিডেন্টের প্রতি সাংবাদিক নেতাদের আহ্বান

১০ কার্যদিবসের সংসদ অধিবেশনে ১৮টি বিল পাস

এখনো জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ

জনগণের বিরুদ্ধে নয়, কল্যাণে আইন করতে হবে

ইতিহাস বদলাতে চায় বাংলাদেশ

গুজব শনাক্তকারী সেল কাজ করবে অক্টোবর থেকে

মেলবোর্নে সন্ত্রাসের অভিযোগ স্বীকার করলো বাংলাদেশের সোমা