ছাগল যখন রাজা

ষোলো আনা

ষোলো আনা ডেস্ক | ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৭
ছাগল, মাথায় রাজমুকুট। সঙ্গে রূপসী রাণী। হ্যাঁ তিনি রাজা। ভাবতে অদ্ভুত লাগলেও এমনটাই হয়ে আসছে আয়ারল্যান্ডজুড়ে। এই ছাগল তার রাণীর সঙ্গে রাস্তায় হেঁটে যাচ্ছে এবং দেশের বাসিন্দারা সম্মানের সঙ্গে কুর্নিশ করছে। এরপর রাজদরবারে বসেন রাণীর সঙ্গে। সেখানে বর দেন তার প্রজাদের। প্রজারাও বর নিয়ে মাথা ঠেকিয়ে চলে যান।
এমনই রাজ কপাল এই ছাগলের, তিনি আয়ারল্যান্ডের কিলোরগন শহরের রাজা। রাজার সিংহাসনে অধিষ্ঠান উপলক্ষে শহরজুড়ে সপ্তাহব্যাপী চলে উৎসব।

আলোয় আলাকিত হয়ে যায় পুরো শহর। থাকে কনসার্ট, নাটক, মেলা ইত্যাদি আয়োজন। কিলোরগনের অধিবাসীদের পূর্বে উৎসব প্রচলিত থাকলেও বর্তমানে তা ছড়িয়ে গেছে সবার মাঝে।

উৎসবটিকে বলা হয় ‘পাক ফেয়ার’ এবং রাজাকে ডাকা হয় ‘কিং পাক’। কিন্তু কেন এই উৎসব? অনেক গল্পে রঞ্জিত ইতিহাস হলেও বহুল প্রচলিত গল্পটি হচ্ছে, সপ্তদশ শতাব্দীতে আয়ারল্যান্ডের রাজা ছিলেন অলিভার করমওয়েল।

তিনি বাস করতেন এই শহরে। এক ফসল কাটার উৎসবে অংশ নেয়ার সময় রাজার পোষা ও প্রিয় ছাগল হারিয়ে যায় পাহাড়ে। নিঃসন্তান সেই রাজা ছাগলটিকে সন্তানের মতো পালন করতেন। সন্তান সমতুল্য ছাগল হারানোর শোকে অসুস্থ হয়ে পড়েন রাজা। এই অসুস্থতাই তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। সেই ছাগল স্মরণে প্রতি বছর পাহাড় থেকে বন্য ছাগল ধরে এনে পাক ফেয়ারের মাধ্যমে তাকে রাজা বানানো হয়।

প্রতি বছর আগস্টের দ্বিতীয় সপ্তাহে এই উৎসব শুরু হয়ে চলে সাত দিন পর্যন্ত। এই সপ্তাহ ছাগল রাজার মতোই আয়েশি ও সম্মানের জীবনযাপন করে। সাত দিন পার হওয়ার পর রাজত্ব ও রাণী হারালেও রয়ে যায় রাজার রেশ। সেই বন্য ছাগল পায় রাষ্ট্রীয় বিশেষ অতিথিশালায় থাকার সুযোগ। মৃত্যু পর্যন্ত আয়েশিভাবেই শেষ হয় সেসব ছাগলের জীবন।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মসজিদ-উল নববীর ইমাম কারাগারে ‘মারা গেছেন’

জনগণের আস্থার মর্যাদা সমুন্নত রাখতে হবে

ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে ভোট ২৮শে ফেব্রুয়ারি

এমন মৃত্যু আর কত?

এক কিংবদন্তির প্রস্থান

ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির ১০ কমিটি

স্পাইসগার্ল টি-শার্ট এবং বাংলাদেশের গার্মেন্ট খাত

ইভিএমের কারচুপি জেনে ফেলায় খুন হন বিজেপি নেতা!

মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে শাহবাগে ফের অবরোধ

ইজতেমা নিয়ে আদালতে আসা লজ্জাকর

তিনি সজ্জন, ভালো মানুষ

দেশে গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একসঙ্গে এগিয়ে যাবে- প্রধানমন্ত্রী

সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে চান ব্যারিস্টার মৌসুমী কবিতা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আফজালের সব সম্পদ জব্দের নির্দেশ

মির্জাপুরে বিএনপির ৪০ নেতাকর্মী কারাগারে

মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সুবিধা আরো বাড়লো