রাগীব আলী ও ছেলের জামিন নামঞ্জুর, কারাগারে

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:০৭
ফের কারাগারে শিল্পপতি রাগীব আলী। সঙ্গে তার ছেলে আব্দুল হাইও। গতকাল ভূমি আত্মসাৎ ও জালিয়াতির মামলায় তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। দুপুরে সিলেটের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের বিচারক মোহাম্মদ মোস্তাইন বিল্লাহ তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরে তাদের দুজনকে কারা প্রিজনে করে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

সিলেট জেলা জজ কোর্টের অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট শামীম আহমদ জানিয়েছেন, তারাপুর চা-বাগানের দেবোত্তর সম্পত্তিতে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের মাধ্যমে হাজার কোটি টাকার ভূমি আত্মসাৎ এবং জালিয়াতির একটি মামলায় রাগীব আলী ও তার ছেলে আব্দুল হাইয়ের পক্ষে জামিন আবেদন জানানো হয়। পরে এ আবেদনের শোনানি শেষে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানো নির্দেশ দেন। এর আগে আলোচিত এই মামলায় ২০১৭ সালের ২রা ফেব্রুয়ারি রাগীব আলী ও তার ছেলে আব্দুল হাইকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড প্রদান করেছিলেন আদালত।


এরপর চলতি বছরের ৯ই আগস্ট এই রায়ের বিরুদ্ধে আসামিরা আপিল করলে সেদিন নিম্‌্ন আদালতের দেয়া ১৪ বছরের সাজা বহাল রেখে রায় এবং নিম্ন আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন বিশেষ জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক। এই মামলায় বছরখানেক জেল খাটার পর ছেলেসহ জামিনে ছিলেন তিনি। সিলেটের হাজার কোটি টাকার তারাপুর চা-বাগান দেবোত্তর সম্পত্তি। জালিয়াতি ও প্রতারণা করে এই বাগান দখল নেয়ার অভিযোগ ওঠে রাগীব আলীর বিরুদ্ধে। এ নিয়ে অভিযোগ ওঠার পর ১৯৯৯ সালে ভূমি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি রাগীব আলীর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে। ২০০৫ সালের ২৭শে সেপ্টেম্বর ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক (চিঠি) জালিয়াতির অভিযোগে কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন তৎকালীন ভূমি কমিশনার (এসি ল্যান্ড) এসএম আব্দুল কাদের।

এছাড়া সরকারের এক হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে আরেকটি মামলা করেন তিনি। এই মামলার বিরুদ্ধে রাগীব আলী উচ্চ আদালতে গেলে দীর্ঘদিন পর ২০১৬ সালের শুরুতে তার নিষ্পত্তি হয়। প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগ ২০১৬ সালের ১৯শে জানুয়ারি রাগীব আলীর বিরুদ্ধে মামলা পুনরায় চালুর নির্দেশ দেন। সেই সঙ্গে তারাপুর চা-বাগান দখল করে গড়ে ওঠা সব স্থাপনা ছয় মাসের মধ্যে সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেয়া হয়। স্মারক জালিয়াতি মামলা ছাড়াও রাগীব আলী ও তার ছেলের বিরুদ্ধে তারাপুর চা-বাগানের ভূমি আত্মসাতের আরেকটি মামলায়ও সাজা দেয়া হয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘হামলা চালিয়ে পুলিশ নির্বাচনের পরিবেশ নষ্ট করছে’

স্পিকারের ঘোষণা: পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছেন রাজাপাকসে

বিনা উস্কানিতে পুলিশের ওপর হামলা:ডিসি মতিঝিল

একপক্ষ নির্বাচন করবে, আর আমরা আদালতে আসবো তা হতে পারে না

ছররা গুলির স্প্লিন্টারে আহত মানবজমিন প্রতিবেদক রুদ্র মিজান

‘নয়া পল্টনে সরকারের পরিকল্পিত হামলা’

ফের হেলমেট বাহিনী!

গণভবন ঘিরে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ঢল

রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা ক্ষমার অযোগ্য

তৃতীয় দিনেও বিএনপির মনোনয়নপত্র কিনতে উপচে পড়া ভিড়

পশ্চিমবঙ্গের নাম বাংলা করা নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের আপত্তি

সরকারী টাকায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচার বন্ধের দাবি বিএনপির

২৮ বছর বয়সেই ফোর্বস ম্যাগাজিনে নাম!

ট্রেন চলাচল বন্ধ

কক্সবাজারে উজ্জ্বীবিত বিএনপি

ডিসেম্বরে শুনানি শেষে চূড়ান্ত রায় শ্রীলঙ্কা সুপ্রিম কোর্টের