আগামীকাল বিএসএমএমইউ সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) অধীন সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতাল নির্মাণের কাজ শুরু হচ্ছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। একইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী সেন্টার অব এক্সিলেন্স প্রকল্পের স্থাপনাসমূহের উদ্বোধনও করবেন। গতকাল অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উত্তর দিকে ১২ বিঘা জমির ওপর এক হাজার ৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্প বাস্তবায়নে সহায়তা করছে দক্ষিণ কোরিয়া। চলতি বছরের ৩১শে জুলাই থেকে আগামী ৩০ মাসের মধ্যে এক হাজার শয্যাবিশিষ্ট এই বিশেষায়িত হাসপাতালের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে। সর্বাধুনিক এই হাসপাতাল চালু হলে জনগণ এখানে সাশ্রয়ী মূল্যে আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসাসেবা পাবেন। প্রতিদিন বহির্বিভাগে সেবা নিতে পারবে দুই থেকে চার হাজার রোগী।
আন্তঃবিভাগে প্রতিবছর প্রায় ২২ হাজার রোগী চিকিৎসাসেবা পাবেন। হতদরিদ্র মানুষ নতুন এই হাসপাতালে সেবা পাবে কিনা- এমন প্রশ্নের উত্তরে ভিসি বলেন, বিএসএমএমইউ হাসপাতাল যে নীতিমালায় পরিচালিত হচ্ছে সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালটিও ওই একই নীতিমালায় পরিচালিত হবে। বিএসএমএমইউ’তে ৪৫ শতাংশ বেড ফ্রি। এসব দরিদ্র মানুষের চিকিৎসাসেবা, বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা বিনামূল্যে করা হয়। এমন কি তাদের প্রয়োজনীয় অপারেশনও বিনামূল্যে করা হয়। এসব সুবিধা নতুন হাসপাতালেও থাকবে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি (গবেষণা) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ শিকদার, প্রো-ভিসি (প্রশাসন) মো. রফিকুল আলম, পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন, প্রকল্প পরিচালক ও বিএসএমএমইউ’র সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. জুলফিকার রহমান খান প্রমুখ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

তারা কেন এত উদ্বিগ্ন হয়ে উঠছেন?

সিনহার বই নিয়ে বাহাস

কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রথম দিককার চিঠি

নিউ ইয়র্কে দুটি অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

পবিত্র আশুরা আজ

তারুণ্যের ব্যর্থতায় লজ্জার হার

খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে

মানবাধিকার ও নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে দুই সংস্থার উদ্বেগ

বাম জোটের কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত অর্ধশত

বিলে স্বাক্ষর না করতে প্রেসিডেন্টের প্রতি সাংবাদিক নেতাদের আহ্বান

১০ কার্যদিবসের সংসদ অধিবেশনে ১৮টি বিল পাস

এখনো জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ

জনগণের বিরুদ্ধে নয়, কল্যাণে আইন করতে হবে

ইতিহাস বদলাতে চায় বাংলাদেশ

গুজব শনাক্তকারী সেল কাজ করবে অক্টোবর থেকে

মেলবোর্নে সন্ত্রাসের অভিযোগ স্বীকার করলো বাংলাদেশের সোমা