নোয়াখালীতে দেড়’শ গ্রামবাসীর বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি মামলা, আটক ৫

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, বুধবার
তারেক আজিজ (১৭) নামে এক কিশোরকে গরম তেলে ঝলসে হত্যার গুজবে নোয়াখালী পূর্ব এওজবালিয়া গ্রামের বেদে পল্লীতে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করেছে এলাকাবাসী। এ ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা হয়েছে। গতকাল দুপুরে পাঁচ গ্রামবাসীকে আটক করেছে পুলিশ। নোয়াখালী জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সৈকত শাহীন জানান, সোমবার রাতে আহত তারেক আজিজের পিতা দোলোয়ার হোসেন বাহার স্থানীয় এলাকাবাসীর পক্ষে বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ ও আরো অজ্ঞাতনামা ৫০/৬০ জনকে আসামি করে একটি মামলা করেন। অন্যদিকে, বেদেপল্লীর পক্ষ থেকে জাকের সর্দার বাদী হয়ে ২৫ জনের নাম উল্লেখ ও আরো অজ্ঞাতনামা ১০০-১৫০ জনকে আসামি করে পাল্টা মামলা করেন। গত সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত এ হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটে। এ সময় বেদেদের ৩২টি টিনের ঘর, ১০টি তাঁবু ও ২৫টি খুপরি ঘরে ভাঙচুর করে এবং ১১টি ঘর ও ১১০টি সাপ পুড়ে দেয় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৭০ রাউন্ড গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
ঘটনা চলাকালে উভয়পক্ষের অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়। সন্ধ্যা ৬টার দিকে খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরী ও জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সৈকত শাহীন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। স্থানীয় সংসদ সদস্য ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তা দেন এবং সার্বিক সহায়তার আশ্বাস দেন। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার বিকালে বেদেপল্লীর এক কিশোরী স্থানীয় একটি দোকানে আইসক্রিম কিনতে গেলে দোকানি অশালীন মন্তব্য করেন। এ নিয়ে বেদেদের সঙ্গে দোকানি ও স্থানীয় লোকজনের বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় তারেক আজিজ নামে এক কিশোরকে দোকানের গরম তেলের কড়াইয়ে ঝলসে দেয় বেদে লোকজন। সে বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গতকাল দুপুরের দিকে এলাকায় তারেকের মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়লে, তার স্বজন ও এলাকাবাসী বেদেপল্লীতে হামলা চালায়। বেদেসর্দার মো. ওয়াসিম অভিযোগ করে জানান, গত ছয় বছর থেকে শতাধিক বেদেপরিবার পূর্ব এওজবালিয়া গ্রামে নিজস্ব ভূমিতে স্থায়ীভাবে বসবাস করে আসছে। বখাটেরা প্রায় সময় তাদের কিশোরীদের উত্ত্যক্ত করে আসছে। আজকের ঘটনায় তাদের ৩২টি টিনের ঘর, ১০টি তাঁবু ও ২৫টি খুপরি ঘরে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায় স্থানীয় লোকজন। এছাড়া ১১টি ঘর ও ১১০টি সাপ পুড়ে যায়। হামলায় ছয় বেদে আহত হয়েছে। তারেক আজিজের (১৭) মা ফেরদৌসী বেগম জানান, আমার পুত্র সুধারাম থানার দারোগা ইমতিয়াজের কাছে বেদেপরিবারের মোস্তাক (৪২) ভারতের এক কিশোরীকে বিয়ে করে মাদকের রমরমা ব্যবসার এক ডজন ভিডিও হস্তান্তর করার পর আমার পুত্রের উপর নেমে আসে আমাবস্যার অন্ধকার। আমার ননদ রুবি ও আমার ঘরবাড়ি আক্রমণ করে আমার ছেলেকে হত্যার চেষ্টা চালায়। সুধারাম মডেল থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, যেকোনো ধরনের সংঘাত এড়াতে এলাকায় অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। ওই ঘটনায় পাঁচ জন গ্রামবাসীকে আটক করা হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নির্বাচন নয়, প্রত্যাবাসন নিয়েই কূটনৈতিক ব্রিফিং: পররাষ্ট্র সচিব

বিশিষ্ট নাগরিকদের ইতিবাচক ভূমিকা চায় ঐক্যফ্রন্ট

নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ইসির অধীনে আনা উচিত

পর্যবেক্ষকদের জন্য নির্বাচন পেছানোর দাবি অযৌক্তিক- কাদের

নির্বাচন নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কূটনৈতিক ব্রিফিং বৃহস্পতিবার

পল্টনে অন্যরকম দৃশ্য

নির্বাচনে লড়তে চান শতাধিক শীর্ষ ব্যবসায়ী

‘হাসিনা: অ্যা ডটারস টেল’ মুক্তি পাবে ১৬ই নভেম্বর

আওয়ামী লীগ চায় নিজের লোক, মেনন বললেন ভিন্ন চিন্তা হলে ভোটই করবো না!

আওয়ামী লীগের ৯, বিএনপির ১০ মনোনয়ন প্রত্যাশী

রূপগঞ্জে আলোচনায় রফিকুল ইসলাম

শহিদুলের মুক্তি চাইলেন অরুন্ধতী রায়সহ দক্ষিণ এশিয়ার ৩৪ বিশিষ্ট ব্যক্তি

নির্বাচনে যাওয়ার ঘোষণা বাম জোটের

বদলে যাচ্ছে মাঠের চিত্র

চলছে ভোটের হিসাবনিকাশ