‘ক্যারি সাইমন্ডস অতিমাত্রায় সেক্সি’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:০৩
বৃটিশ সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন প্রেমে মজেছেন তার মেয়ের থেকে মাত্র চার বছরের বড় ক্যারি সাইমন্ডসের (৩০) সঙ্গে। এই যুবতীকে তার এক বন্ধু বর্ণনা করেছেন এভাবে, তিনি এমন একজন নারী যার ক্ষেত্রে প্রাণবন্ত শব্দটি হয়তো সৃষ্টি হয়েছে। তিনি অতি মাত্রায় বুদ্ধিমতী। অত্যন্ত সুন্দরী এবং অতিমাত্রায় সেক্সি। বরিস জনসনের বিবাহবহির্ভূত প্রেমের সম্পর্কে জড়ানো এই যুবতীর পিতা বৃটেনে দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ম্যাথিউ সাইমন্ডস (৬৪)। আর মা ওই পত্রিকাটির অন্যতম আইনজীবী জোসেফিন ম্যাক্যাফি (৭০)। বরিস জনসন তার স্ত্রী মেরিনা হুইলারের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা দেয়ার পর থেকেই বৃটিশ মিডিয়া বিষয়টি লুফে নিয়েছে। প্রতিদিনই খবরের শিরোনাম হচ্ছেন বরিস জনসন, মেরিনা হুইটাল ও ক্যারি সাইমন্ডস।
কিন্তু বরিস জনসনের ঘোষণার পর প্রকাশ্যে দেখা যায় নি তার প্রেমিকাকে। কিভাবে তাদের প্রেমের সূচনা হয়েছিল তা অনুসন্ধান করছে মিডিয়া। তার মধ্যে ডেইলি মেইল লিখেছে, মার্চে উত্তর লন্ডনে নিজেদের বাড়িতে ৩০তম জন্মদিনের পার্টি আয়োজন করলেন ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলের ক্যারি সাইমন্ডস। ঘরোয়া পার্টি সেঠা। সেখানে উপস্থিত হলেন তাদের সঙ্গে সুপরিচিত উঁচু স্তরের কিছু অতিথি। সেখানে রাখা হয়েছিল এলকোহল। ফ্রি। যে যতটা পারেন নিয়ে নেবেনÑ বিষয়টি এমন। নির্ভেজাল পার্টি। সবাই তাতে আটকে গেল। এক পর্যায়ে ক্যারি সাইমন্ডস তার চোখ ধাঁধানো চমৎকার ড্রেস পড়ে অন্যদের সঙ্গে নাচতে শুরু করলেন লিভিং রুমে। সেখানে ছিলেন মন্ত্রীপরিষদের বয়স্ক কিছু সদস্য। এর মধ্যে ছিলেন পরিবেশ বিষয়ক মন্ত্রী মাইকেল গভ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাজিদ জাভিদ। তারা চারদিকে ঝাঁকুনি দিয়ে দিয়ে চলাচল করছিলেন। কিন্তু সবার চোখ যেন আটকে গিয়েছিল তখনকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের (৫৪) দিকে। তিনি ড্যান্সফ্লোরে অতিমাত্রায় নড়াচড়া করছিলেন। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এমন একজন অতিথি বলেছেন, বিস্ময়করভাবে বরিস জনসন একজন ভাল নাচিয়ে। তিনি নাচের ভিতর নিচে যুক্ত হয়েছিলেন। পার্টিটাকে প্রথম স্থানের মর্যাদায় নিয়ে যাওয়ার জন্য তিনি খুব চেষ্টা করেছেন। তা ছাড়া তিনি যার জন্মদিন তাকে খুশি করার জন্য যেন বদ্ধপরিকর ছিলেন। এখন যা জানা যাচ্ছে তাহলো, বেশ কিছু সময় ধরে তিনি ও ক্যারি সাইমন্ডসের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বেড়ে গিয়েছিল। তাই কভেন্ট গার্ডেনে  রুলস রেস্তোরাঁয় ভ্যালেন্টাইনস ডে’তে এক রোমান্টিক নৈশভোজে মিলিত হলেন তারা। তাদেরকে অনুসরণকারী একজন বলেছেন, ওই নৈশভোজে খাবার খাওয়াটা ছিল অন্তরঙ্গ একটি বিষয়। পাশের একটি টেবিলে বসেই বরিস জনসনের দেহরক্ষীরা হাত কচলাচ্ছিলেন। এর এক সপ্তাহ আগে তাদেরকে কনজার্ভেটিভ পার্টির ‘ব্লাক অ্যান্ড হোয়াইট বল’-এ দেখা যায় ঝলমলায়মান। একজন অন্যজনের দিকে দুষ্টুমিতে ভরা চোখে তাকাচ্ছিলেন। এরও এক মাস আগের কথা। ব্রেক্সিটিয়ারদের গেট টুগেদারের এক অনুষ্ঠানে বরিস জনসন ও ক্যারি সাইমন্ডস একসঙ্গে এলেন। তাা সেখানে পুরোটা সন্ধ্যা গল্প করে কাটালেন। তারপর একসঙ্গে চলে গেলেন।
মেরিনা হুইলার হলেন বরিস জনসনের দ্বিতীয় স্ত্রী। তার গর্ভে জন্ম নিয়েছেন জনসনের চার সন্তান। তার মধ্যে সবচেয়ে বড়জন হলেন মেয়ে লারা। তিনি ফ্যাশন নিয়ে পড়াশোনা করছেন। তার থেকে মাত্র ৫ বছরের বড় সাইমন্ডস।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

নির্বাচন নয়, প্রত্যাবাসন নিয়েই কূটনৈতিক ব্রিফিং: পররাষ্ট্র সচিব

বিশিষ্ট নাগরিকদের ইতিবাচক ভূমিকা চায় ঐক্যফ্রন্ট

নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে ইসির অধীনে আনা উচিত

পর্যবেক্ষকদের জন্য নির্বাচন পেছানোর দাবি অযৌক্তিক- কাদের

নির্বাচন নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কূটনৈতিক ব্রিফিং বৃহস্পতিবার

পল্টনে অন্যরকম দৃশ্য

নির্বাচনে লড়তে চান শতাধিক শীর্ষ ব্যবসায়ী

‘হাসিনা: অ্যা ডটারস টেল’ মুক্তি পাবে ১৬ই নভেম্বর

আওয়ামী লীগ চায় নিজের লোক, মেনন বললেন ভিন্ন চিন্তা হলে ভোটই করবো না!

আওয়ামী লীগের ৯, বিএনপির ১০ মনোনয়ন প্রত্যাশী

রূপগঞ্জে আলোচনায় রফিকুল ইসলাম

শহিদুলের মুক্তি চাইলেন অরুন্ধতী রায়সহ দক্ষিণ এশিয়ার ৩৪ বিশিষ্ট ব্যক্তি

নির্বাচনে যাওয়ার ঘোষণা বাম জোটের

বদলে যাচ্ছে মাঠের চিত্র

চলছে ভোটের হিসাবনিকাশ