কলকাতায় বাংলা ধারাবাহিকের শুটিং বন্ধ

বিনোদন

কলকাতা প্রতিনিধি | ২১ আগস্ট ২০১৮, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:০৬
বকেয়া পারিশ্রমিক এবং কাজের নির্দিষ্ট সময়সীমা দাবিতে গত দু’মাসে দুবার শুটিং বন্ধ হয়েছে বাংলা ধারাবাহিকের। গত  শনিবার থেকে টালিগঞ্জে প্রতিদান, রাণী রাসমনি, কুসুমদোলা, ফাগুন বৌ, সাত ভাই চম্পা, অন্দরমহল-র  মতো জনপ্রিয় ধারাবাহিকের শুটিং বন্ধ হয়ে রয়েছে। বাংলা ধারাবাহিকের শিল্পী সংগঠন বা আর্টিস্ট ফোরামের সদস্যদের প্রতিবাদের জেরে বন্ধ শুটিং ।

অনির্দিষ্টকালীন এই ধর্মঘটের সমাধান সূত্রের খোঁজ এখনও পাওয়া যায়নি। ফলে সোমবার অধিকাংশ ধারাবাহিকের সম্প্রচারের পরিবর্তে পুরনো এপিসোডকে এদিক ওদিক করে দেখানো হয়েছে। আর্টিস্ট ফোরামের মূল অভিযোগ, বেশ কিছু ধারাবাহিকের অভিনেতা-অভিনেত্রী এবং টেকনিশিয়ানদের পারিশ্রমিক বকেয়া রয়েছে। তা না মেটানো পর্যন্ত শুটিংয়ে অংশ নিতে চাননি তারা। অভিযোগ, মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে পারিশ্রমিক দেওয়ার কথা প্রযোজক সংস্থার।


কিন্তু বেশ কিছু হাউজ সেই নিয়ম মানছে না বলে অভিযোগ। সোমবার বিকেলে টেকনিশিয়ান স্টুডিওতে সাংবাদিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায়, শঙ্কর চক্রবর্তী প্রমুখ। প্রসেনজিৎ ্ বলেছেন, টেকনিশিয়ানদের অনেক টাকা বকেয়া রয়েছে। ফেডারেশন এবং আর্টিস্ট ফোরামের তরফে গত ৭ই জুলাই একটা চুক্তিপত্রে আমরা সই করেছিলাম। সেখানে বকেয়া টাকা মিটিয়ে দেওয়ার কথা ছিল।

আর্টিস্ট ফোরামের তরফে আমরা অনুরোধ করেছিলাম কাজটা শুরু হোক। কিন্তু পরে অনেকে বলেছেন আমরা ওই চুক্তি মানি না। শিল্পী অরিন্দম গঙ্গোপাধ্যায় বলেছেন, বেশ কিছু প্রযোজক শিল্পীর ন্যয্য পাওনা কেটে সেটা পরে জমা করছেন না। প্রবীণ অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায় বলেছেন, আর্টিস্ট ফোরামের যে দাবি, টাকা সময়মতো দেওয়া বা নির্দিষ্ট সময়ে কাজ করানো, সবটাই যুক্তিসঙ্গত। তবে আন্দোলনের ফলে ইন্ডাস্ট্রিতে সঙ্কটের আশঙ্কায় তিনি উদ্বিগ্ন। অন্যদিকে অভিনেত্রী কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, যেভাবে সিরিয়াল পাড়ায় কাজ হয় সেটা একেবারেই ঠিক নয়।

প্রযোজক, আর্টিস্ট কারও দিক থেকেই নয়। দেখুন, মূল চরিত্র যিনি করেন তিনি অন্য সিরিয়াল করতে পারেন না। আবার একদল আছেন যাঁরা মূল চরিত্র করেন না, তারা কিন্তু তিনাট সিরিয়াল করতে পারছেন। কে একটা করবে আর কে তিনটি, সেটা প্রযাজকের  সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্কের নিরিখে তৈরি হয়। সবার ক্ষেত্রে যাতে একটা নিয়ম হয় সেটার জন্যই এই ধর্মঘট। এর সমাধান হওয়া দরকার। মধ্যস্থতা করে সবটা পেশাদার করা দরকার।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ছাত্রলীগ আহবায়ক বাবলু কারাগারে

২৪ মার্চ থাইল্যান্ডে নির্বাচন

ভোলার সেই ইউপি সদস্য গ্রেপ্তার

ডিএনসিসি নির্বাচনের তফসিল পুনঃনির্ধারণের দাবি সিপিবি’র

নাওমি ক্যাম্পবেলময় ফ্যাশনশো

নরপিশাচ পিতা!

শ্যামনগরে সড়ক দূর্ঘটনায় ৬ বছরের শিশু নিহত

ড্রাগপ্রতিরোধী সংক্রমণ বিশ্বস্বাস্থ্যের জন্য জরুরি অবস্থার মতো

ফেসবুক হ্যাক করে ব্ল্যাকমেইল, গ্রেপ্তার ৩

লক্ষ্মীপুরে দূর্ঘটনায় শিক্ষক নিহত, সড়ক অবরোধ

দুর্যোগ সম্পর্কে জনগণ এখন অত্যন্ত সচেতন: প্রধানমন্ত্রী

ওয়াসায় অব্যবস্থাপনা আর নয়

ভেনিজুয়েলায় বিরোধী নেতা নিজেকে প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করলেন, স্বীকৃতি দিলেন ট্রাম্প

বিএনপিকে বিভক্ত করার চক্রান্ত হচ্ছে: ফখরুল

বিএসএমএমইউতে নার্স-কর্মচারীদের সংঘর্ষ

১৬ দিনের মাথায় চার্জশিট