সালিশে ধর্ষক আওয়ামী লীগ নেতার জরিমানা ৫ লাখ টাকা

বাংলারজমিন

চৌহালী (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি | ১৪ আগস্ট ২০১৮, মঙ্গলবার
এনায়েতপুর থানার দৌলতপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবুলকে এলাকার এক তাঁত শ্রমিকের স্ত্রীকে ধর্ষণ করায় গ্রাম্য সালিশে সাজা দেয়া হয়েছে। এছাড়া সিনিয়র আওয়ামী লীগের নেতাদের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত এই সালিশি বৈঠকে লম্পট এ নেতাকে দল থেকে বহিষ্কারও করা হয়েছে। দুই সন্তানের জননী ধর্ষিত ওই গৃহবধূ অভিযোগ করে জানান, গোপরেখী গ্রামের মাস্টারপাড়ায় তাদের বাড়ি। হাবুল বাড়ি এসে তাকে বলে এমপি মজিদ মণ্ডলের দেয়া ভিজিএফ কার্ড ও ৫০০ টাকায় নাম তাকে দেয়া হবে। হঠাৎ গত ৩০শে জুলাই বেলা ১২টার সময় অঝোরধারায় বৃষ্টি নামার সময় বাড়িতে কেউ ছিল না বিধায় আসে হাবুল। এ সময় ভেতরে প্রবেশ করা মাত্রই ঘরে শিকল আটকিয়ে দেয়। এরপর ওই গৃহবধূকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। বাধা দেয়ায় তাকে মারধর ও হাতের শাঁখা ভেঙে ফেলা হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন।
বিষয়টি তার মাধ্যমে জানাজানি হলে বেলকুচি ও এনায়েতপুর থানাজুড়ে ব্যাপক নিন্দার ঝড় বয়ে যায়। পরে নির্যাতিত স্ত্রীর স্বামী ও তার পরিবারের অন্য সদস্যরা সাবেক মন্ত্রী সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ বিশ্বাসসহ দলের সব পর্যায়ের নেতা-কর্মী ও সমাজপতিদের কাছে অভিযোগ দিলে গত সোমবার রাতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের বাড়ি বেলকুচির কামারপাড়ায় এক জনাকীর্ণ সালিশ বৈঠক বসে।
বৈঠকে দোষ স্বীকার করে লম্পট হাবুল। পরে জুরি বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নির্যাতিত ওই নারীকে মা বলে পা ধরে ক্ষমা চান লম্পট হাবুল। করা হয় ৫ লাখ টাকা জরিমানা। এছাড়া দল এবং পদ থেকে করা হয় বহিষ্কার। এরপরও আজীবনের জন্য নির্যাতিতার বাড়ির আশপাশ তথা ওই মাস্টারপাড়া যেতে তাকে অলিখিত নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। এর সবই মেনে নেন লম্পট হাবুল। যা গ্রাম্য সালিশে দৃষ্টান্ত মনে করে উপস্থিত সবাই।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এইচএসসির ফল প্রকাশ কাল

আততায়ীর গুলিতে ফুটবলারের মৃত্যু

বিশ্বকাপের প্রাইজমানি কে কত পেল?

আদালতে খুনের দায়ভার কে নেবে, প্রশ্ন সালমা আলীর

এরশাদের জানাজা সম্পন্ন, লাশবাহী গাড়ি ঘিরে নেতাকর্মীরা, দাফন নিয়ে হট্টগোল (ভিডিও)

পারিবারিক রাজনীতির সমাপ্তি ঘটছে ভারতীয় উপমহাদেশে

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে: সালমান এফ রহমান

বাঁচানো গেল না সার্জেন্ট কিবরিয়াকে

চার পুলিশ হত্যা মামলা দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরে বাধা নেই

সন্ত্রাস উইপোকার মতো রাষ্ট্র-সমাজকে ভেতর থেকে খেয়ে ফেলছে: রিজভী

কারো গাফিলতি আছে কিনা খুঁজে দেখা হচ্ছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

এরশাদকে দেখতে রংপুরে উপচেপড়া ভিড়

প্রায় তিন দশকের মধ্যে সবচেয়ে ধীর গতিতে বাড়ছে চীনের অর্থনীতি

আদালতে হত্যাকাণ্ড : বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট

নারায়ণগঞ্জে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১৪ মামলার আসামি নিহত

বন্দুকযুদ্ধ’র সময় নদীতে ডুবে মারা গেলো মাদক ব্যবসায়ী