সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে সরোয়ারের শঙ্কা

প্রথম পাতা

মারুফ কিবরিয়া, বরিশাল থেকে | ২৩ জুলাই ২০১৮, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৩৫
বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আর ছয় দিন বাকি। শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছে বড় দুই দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ অন্য দলগুলো। তবে, এর মধ্যেই  প্রচার-প্রচারণায় ক্ষমতাসীন দলের নেতারা বিএনপি নেতাকর্মীদের বাধা দিচ্ছে বলে অভিযোগ দলটির মনোনীত মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরোয়ারের।

মানবজমিনের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ অভিযোগের কথা জানান। সরোয়ার বলেন, আমি নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় অংশ নিতে পারলেও আমার দলের নেতাকর্মীদের বাধা দেয়া হচ্ছে। কোনো মিছিল মিটিং করতে দিচ্ছে না। ক্ষমতাসীন দলের লোকজনই এ বাধা প্রয়োগ করছে।
এমনকি অফিসেও ঠিকভাবে বসতে দেয়া হচ্ছে না। সেই সঙ্গে বিচ্ছিন্নভাবে কোথাও প্রচারণায় অংশ নিতে গেলে আমার সমর্থকদের বাধা দেয়া হয়। তবে, সবকিছুর ওপরেও আমি সবাইকে ধৈর্য ধারণ করতে বলেছি।

মারধর খেলেও যেন নির্বাচন পর্যন্ত মাঠে থেকে দলের জন্য কাজ করে, ভোটের প্রচার-প্রচারণায় অংশ নেয় সেই নির্দেশ দিয়েছি। বরিশালে সুষ্ঠু নির্বাচন হওয়ার জন্য আইনের কঠোর প্রয়োগ হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন মজিবর রহমান সরোয়ার। একই সঙ্গে সরকার ও প্রশাসনের কাছে আইনি সহায়তা আশা করেন তিনি।

এই মেয়র প্রার্থী বলেন, পুরো বরিশাল সিটি নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দিতে হবে। প্রশাসনের উচিত এখনই এসব ব্যাপারে নজর দেয়া। নির্বাচনের আগে আগে বরিশাল শহরে বহিরাগতদের আগমন নিয়েও বেশ আতঙ্কের মধ্যে রয়েছেন সাবেক এই হুইপ। ক্ষমতাসীন দল নির্বাচনের মাঠে বরিশালের বাইরের লোকজন নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় কাজে লাগাচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি। মজিবর রহমান সরোয়ার বলেন, বহিরাগতদের এনে তারা সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাতে চায়।

নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশক বিঘ্ন ঘটাতে চায়। এসব ব্যাপারে সরকার ও প্রশাসনের নজর দেয়া উচিৎ বলেই আমি মনে করি। বরিশালের বর্তমান এ পরিস্থিতি নিয়ে নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা কি জানতে চাইলে সরোয়ার বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশনে প্রতিদিনই সব অভিযোগ জানাচ্ছি। এখনো সে হিসেবে কোনো প্রতিকার মেলেনি।

বরিশাল নগরীতে গত কয়েকদিন ধরে শুরু হয়েছে পুলিশের গ্রেপ্তার অভিযান। বিএনপির পক্ষ থেকে শনিবারও এ নিয়ে অভিযোগ করা হয়েছে। তাদের দাবি এখন পর্যন্ত জামায়াত নেতাসহ মোট পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যা নির্বাচন কমিশনের বেঁধে দেয়া আচরণ বিধি লঙ্ঘন হয়েছে বলেই মনে করছেন মজিবর রহমান সরোয়ার।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বরিশাল সিটিতে এখন সবচেয়ে বড় সমস্যা হলো গ্রেপ্তার। পুলিশ যেখানেই পাচ্ছে ধরে নিয়ে যাচ্ছে। আমাদের নেতাকর্মীরা ঠিকমত বাসায় যেতে পারছেন না। নির্বাচন কমিশন থেকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলে দেয়া সত্ত্বে কোনো পরোয়ানা ছাড়া গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। এসব নিয়ে আমরা বেশ চিন্তিত। প্রতিনিয়ত দলের লোকজনকে হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত জামায়াত নেতাসহ পাঁচ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

দলের লোকজন নানাভাবে হয়রানির শিকার হচ্ছে। ঘুমাতেও পারছেন না ঠিকভাবে। বরিশাল সিটি নির্বাচনে অচিরেই সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়ে বিএনপি মনোনীত এ প্রার্থী বলেন, আমরা পত্রপত্রিকায় দেখেছি, এখানে প্রশাসনের লোকজনের মাথায় আওয়ামী লীগের নেতারা পিস্তল ঠেকিয়েছে। দু’দিন আগে কাউনিয়া থানায় এক নারী এসআইকে রাস্তায় পিটিয়েছে। এসব দেখে তো আমরা আশাহত হচ্ছি যে, পুলিশরা কিভাবে তাদের রক্ষা করবে।

এজন্য আমরা অচিরেই বরিশাল সিটি নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের কথা বলেছি। ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) নিয়ে আগেই আপত্তির কথা জানিয়েছেন মজিবর রহমান সরোয়ার। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইভিএমের ব্যাপারে আমাদের জনগণ জ্ঞাত নয়। এটা প্রশিক্ষণ দিয়ে তারপর করাতে হবে। কিন্তু প্রশিক্ষণ ছাড়া ইভিএম-এ ভোটগ্রহণ একেবারে অন্ধকারে ঠেলে দেয়ার মতো অবস্থা। নির্বাচনে জয়ী হলে বরিশাল শহরকে আধুনিক শহরে রূপান্তর করবেন বলে জানান সাবেক এই এমপি। তিনি বলেন, বরিশালের মানুষকে সুন্দর ও একটি আধুনিক শহর উপহার দেবো। একই সঙ্গে শহর নিয়ে নানা পরিকল্পনার কথাও জানান তিনি। নির্বাচনে প্রচারণায় সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে মজিবর রহমান সরোয়ার আরো বলেন, জনগণ আমাদের সঙ্গে আছে। নির্বাচন সুষ্ঠু হলে জয় আমাদেরই হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাজপেয়ী প্রয়াত

কোটা আন্দোলনের নেত্রী লুমা রিমান্ডে

তাদের উদ্দেশ্য কি?

ওয়ান ইলেভেনের ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছি

সাইবার হামলার আশঙ্কায় সব ব্যাংকে সতর্কতা জারি

ঢাকার নিন্দা বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে তলব

বাংলাদেশে বাকস্বাধীনতা ও প্রতিবাদের অধিকারের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন

আমীর খসরুকে দুদকে তলব

রোহিঙ্গা প্রশ্নে চীন ও রাশিয়ার অবস্থান পাল্টায়নি এখনো

মহাসড়কে যানজট ঈদযাত্রার আগেই ভোগান্তি

যুবলীগ নেতার গ্রেপ্তার দাবিতে সড়কে এমপি

স্ত্রী-সন্তানের সঙ্গে ঈদ করা হলো না প্রবাসী নাছিরের

অতিরিক্ত গচ্চা ১১১ কোটি টাকা

পেট্রোবাংলার ৭ কর্মকর্তাকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

পাকিস্তানে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন আজ

লুমা রিমান্ডে, ১২ ছাত্রের জামিন নামঞ্জুর