ইবি নিয়োগ বাণিজ্য পদ হারালেন দুই শিক্ষক

শিক্ষাঙ্গন

ইবি প্রতিনিধি | ১৬ জুলাই ২০১৮, সোমবার
নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগে প্রশাসনিক পদ হারালেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিযুক্ত দুই শিক্ষক। রেকর্ড ফাঁস হওয়ায় ড. আজাদকে বঙ্গবন্ধু হল প্রভোস্ট এবং ড. বিকুলকে টিএসসিসির পরিচালকের পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়েছে প্রশাসন। আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সূত্র মতে, প্রভাষক পদে নিয়োগ পাইয়ে দেবার নামে ২০ লক্ষ টাকা লেনদেনের অভিযোগে তদন্ত কমিটি করেছিল প্রশাসন। তবে অভিযুক্ত ড. শাহাদৎ হোসেন আজাদ এবং ড. বাকী বিল্লাহ বিকুলকে প্রশাসনিক পদ থেকে ওএসডি না করায় বিতর্ক শুরু হয়। এ নিয়ে মানবজমিনে সংবাদ প্রকাশ হয়। পরে বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে ড. আজাদকে বঙ্গবন্ধু হলের প্রভোস্টের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। তার অবর্তমানে হলের হাউস টিউটর ও ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বখতিয়ার হাসানকে প্রভোস্টের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। একই সাথে ড. বিকুলকে বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তন কেন্দ্রের পরিচালকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।
তদন্ত কাজে স্বচ্ছতার জন্য তাদের অব্যাহতি দেয়া হয়েছে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস, এম আব্দুল লতিফ বলেন, নিয়োগ বাণিজ্যের অডিও ফাঁসের ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি কাজ করেছে। এই তদন্ত কাজে স্বচ্ছতা আনতে অভিযুক্ত শিক্ষকদের প্রশাসনিক দায়িত্ব হতে বিরত রাখার সিন্ধান্ত গ্রহণ করেছে প্রশাসন।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

অপরাধীদের শুধু শাস্তি নয় পুনর্বাসনও জরুরি

জাবিতে ‘মাদক পার্টিতে’ তুলকালাম

৩ শিশু ধর্ষিত

নাটোরে কাউন্সিলরকে কুপিয়ে হত্যা

চলতি মাসেই মামলা: অর্থমন্ত্রী

ওনারা ধান ভানতে শিবের গীত গাইছেন

ঐক্যফ্রন্টের বিজয়ীরা এককভাবে কি সংসদে যেতে পারবেন?

গণমাধ্যমের বিকাশ শেখ হাসিনার হাত ধরেই

আইন সংশোধন ছাড়া তৃতীয় লিঙ্গের কেউ এমপি হতে পারবেন না

শারীরিক জটিলতা বেড়েছে সিঙ্গাপুর গেলেন এরশাদ

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১১

ওবায়দুল কাদেরের প্রশ্ন নিখুঁত নির্বাচন কোথায় হয়

হত্যার পরও মুক্তিপণ দাবি করছিল খুনিরা

জল্পনার জবাব দিলেন আরিফ

নতুন নৌপ্রধান আওরঙ্গজেব

ডিপিডিসি পরিচালকের ঢাকাতেই ৫ বাড়ি!