ড্রেসিং রুমে ফ্রান্স-ক্রোয়েশিয়া, প্রস্তুত দু’দলের সমর্থকরাও

রাশিয়া থেকে

সামন হোসেন মস্কো (রাশিয়া) থেকে | ১৫ জুলাই ২০১৮, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৩৮
ম্যাচ শুরুর তিন ঘন্টা আগে স্টেডিয়ামে এসেছে ফ্রান্স দল। তার কিছুপর  অর্থাৎ  স্থানীয় সময় তিনটার কিছু পরে (বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ছয়টা) স্টেডিয়ামে প্রবেশ করেছে ফাইনালের অপর দল ক্রোয়েশিয়া। ড্রেসিরুমে দুই দল যখন অবস্থান করছিল, ঠিক তখনই লুঝনিকির বাইরে প্রস্তুতি নিচ্ছে দু’দলের সমর্থকরাও। 
ম্যাচ শুরুর হওয়ার ঘন্টা তিনেক আগেই লুঝনিকির স্টেডিয়ামের আশপাশ দখলে নিয়েছে তারা। শুধু ক্রোয়েশিয়া- ফ্রান্স বললে ভুল হবে ফাইনালে দেখা মিলছে বহু দেশের ফুটবল প্রেমীর। কারো গায়ে ব্রাজিল, কারো গায়ে আবার আর্জেন্টিনার জার্সি। কেউ এসেছে রাশিয়ার জার্সি পরে।

বাংলাদেশের বেশ কয়েকজন ফুটবল প্রেমীর দেখা মিলেছে লুঝনিকিতে। আর্জেন্টিনার সার্জি লিও নামে এক দর্শক জানান, আর্জেন্টিনা ফাইনালে উঠবে এবং শিরোপা জিততে এই আশা করেই ফাইনালের টিকেট কেটে রেখেছিলাম।
বিমানের টিকেটও আগে করা ছিলো তাই মনে না চাইলে খেলা দেখতে এসেছি। লিও’র মতো অনেক ব্রাজিলিয়ান ব্রাজিল ফাইনালে উঠবে বলে আগে ভাগেই টিকেট কেটে রেখেছিল। তারা এসেছে ফ্রান্স-ক্রোয়েশিয়ার ফাইনাল দেখতে।

তাদের মাঝে উত্তাপ দেখা না গেলে স্টেডিয়ামের নেচে গেয়ে মাতিয়ে রেখেছে ফরাসি সমর্থকরা। ক্রোয়েশিয়ার চেয়ে এদিন এদের সংখ্যাও বেশি দেখা যাচ্ছে। উপচেপরা  ভিড় লক্ষ্য করা গেছে অফিসিয়াল স্যুভিনির সপে। এসব দোখান থেকে শেষ মুহুর্তে বিশ্বকাপের স্মৃতি স্মম্বলিত স্যুভিনির কিনছেন ফাইনাল দেখতে আসা দর্শকরা।

৩২টি দল, ৬৪টি ম্যাচ আর ১১ শহরের ১২টি সুসজ্জিত ভেন্যুর নানা চমকের বিশ্বকাপ অবশেষে শেষ হতে চললো। ৩২ দল থেকে বিদায় নিতে নিতে বাকি রয়েছে আর মাত্র দুটি-ফ্রান্স এবং ক্রোয়েশিয়া। এরই মধ্যে দু’বার বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলে ফেলেছে ফ্রান্স। আর এই প্রথম বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠলো ক্রোয়াটরা। মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়াম থেকে কে তুলে ধরবে বিশ্বকাপের সোনালি ট্রফিটা? হুগো লরিস নাকি লুকা মদরিচ।  তার উত্তর মিলবে কয়েক ঘন্টা পর।

কী ঘটবে লুঝনিকিতে ফ্রান্সের পুনরাবৃত্তি না ক্রোয়েটদের রূপকথা। ক্রোয়েট দর্শকরাও ভেবে নিয়েছে রূপকথাই ঘটতে যাচ্ছে লুঝনিকিতে। এরইমধ্যে রাশিয়ায় উপস্থিত হয়ে বিস্ময়ের জন্ম দেয়া হলিউড সুপারস্টার উইল স্মিথর স্টেডিয়ামের ভিতরে উপস্থিতি হয়ে সঙ্গীদের নিয়ে শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি সারছেন। উইল স্মিথের পাশে আছেন কসোভার গায়িকা ইরা ইস্ত্রেফি।

সব মিলিয়ে দারুন এক বিশ্বকাপ পরিসমাপ্তির দিকেই এগুচ্ছি। এখানে আজ এক দল সোনালি ট্রফিটি উঁচিয়ে  ধরবে, অন্য দল প্রতিক্ষায় থাকবে আগামীর জন্য। হয়তো সেটা হতে পারে ক্রোয়েটদের ইতিহাস, নতুবা ফ্রান্সের ট্রফি জয়ের পুনরাবৃত্তি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

তারা কেন এত উদ্বিগ্ন হয়ে উঠছেন?

সিনহার বই নিয়ে বাহাস

কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রথম দিককার চিঠি

নিউ ইয়র্কে দুটি অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

পবিত্র আশুরা আজ

তারুণ্যের ব্যর্থতায় লজ্জার হার

খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে

মানবাধিকার ও নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে দুই সংস্থার উদ্বেগ

বাম জোটের কর্মসূচিতে পুলিশের লাঠিচার্জ, আহত অর্ধশত

বিলে স্বাক্ষর না করতে প্রেসিডেন্টের প্রতি সাংবাদিক নেতাদের আহ্বান

১০ কার্যদিবসের সংসদ অধিবেশনে ১৮টি বিল পাস

এখনো জঙ্গি হামলার ঝুঁকিতে বাংলাদেশ

জনগণের বিরুদ্ধে নয়, কল্যাণে আইন করতে হবে

ইতিহাস বদলাতে চায় বাংলাদেশ

গুজব শনাক্তকারী সেল কাজ করবে অক্টোবর থেকে

মেলবোর্নে সন্ত্রাসের অভিযোগ স্বীকার করলো বাংলাদেশের সোমা