গণপ্রহার থেকে মুসলিম যুবককে বাঁচিয়ে সকলের ‘হিরো’ এই শিখ পুলিশকর্মী

অনলাইন

আনন্দবাজার | ২৬ মে ২০১৮, শনিবার, ৯:১৪
দুটো ঘটনা যেন মিলিয়ে দিল উত্তরের দুই রাজ্যকে। একটি উত্তরাখণ্ডে, অপরটি উত্তরপ্রদেশে।দুই রাজ্যেই মুসলিম যুবককে গণপ্রহারের অভিযোগ উঠেছে। কাকতালীয় ভাবে কারণ অনেকটা একই রকম।

এক যুবককে ঘিরে রয়েছে এক দল মানুষ। হঠাত্ই যুবকের উপর আছড়ে পড়ল পুরো ভিড়টা। দমাদ্দম কিল, চড়, ঘুসি উড়ে এল ভিড়ের মধ্যে থেকে। যুবকটি নিজেকে প্রাণপণে বাঁচানোর যত চেষ্টা করছে, ততই মারমুখী হয়ে উঠে ভিড়ের মধ্যে থাকা মানুষগুলো।

মারমুখী জনতার রোষ থেকে ছেলেটিকে বাঁচানোর জন্য এগিয়ে আসতে দেখা যায় এক শিখ পুলিশকর্মীকে।
পুলিশ তো কী হয়েছে, উন্মত্ত মানুষগুলোর মার গিয়ে পড়ে তাঁর উপরও। কিন্তু হাল ছাড়েননি ওই পুলিশ কর্মী। নিজে ‘ঢালের’ মতো দাঁড়িয়ে জনতার মার থেকে বাঁচিয়েছে ওই যুবককে। গগনদীপ সিংহ নামে সেই পুলিশকর্মীই এখন সকলের ‘হিরো’।
ঘটনাস্থল উত্তরাখণ্ডের রামনগর। গত মঙ্গলবার সেখানেই এক মন্দিরের কাছে এক মুসলিম যুবককে গণপ্রহারের অভিযোগ উঠেছে। যুবকটি হিন্দু এক বান্ধবীর সঙ্গে সেখানে গিয়েছিলেন। হঠাত্ই এক দল লোক তাঁদের ঘিরে ধরে। তার পরই শুরু হয় বেদম মার।তখনই গগনদীপ সিংহ নামে ওই পুলিশ অফিসার এসে যুবকটিকে উদ্ধার করেন। যুবককে মারধর এবং উন্মত্ত জনতার হাত থেকে যুবককে বাঁচানোর ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়ে। পুলিশ অফিসারের সাহসিকতা প্রশংসিত হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।

শুক্রবারে ঠিক এই ধরনের ছবি ধরা পড়েছে উত্তরপ্রদেশে কানপুরে। হিন্দু সম্প্রদায়ের এক তরুণীর সঙ্গে দেখা করতে যাওয়ায় এক মুসলিম যুবককে বেধড়ক মারধর করার অভিযোগ উঠেছে এক দল লোকের বিরুদ্ধে। দু’মিনিটের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, হামলাকারীরা যুবকের কাছে জানতে চাইছে কী সম্পর্ক রয়েছে তাঁদের মধ্যে? যুবকটি উত্তর দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শুরু হয় চড়-থাপ্পড়। ওই ভিডিওতেই হামলাকারীদের বলতে শোনা যায়, “যদি তোর জীবন বরবাদ না করে দিতে পারি, তা হলে আমাদের নামই বদলে দেবো!” হুমকির পাশাপাশি চলছিল মারধরও। যদিও এই ঘটনায় অভিযুক্তদের পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দুঃস্বপ্নের রাত, কান্না

মেসিডিয়ান সভ্যতা ভ্যানিশ?

সেই বাড়িতে বসে খেলা দেখলেন ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত

গাজীপুরে সর্বত্র এক প্রশ্ন

৩০ লাখ টাকায় সমঝোতার প্রস্তাব

আওয়ামী লীগের ৬৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী আজ

আর্জেন্টাইন সমর্থকরা নিস্তব্ধ

ডাকে সাড়া দিলেন না মেসি

সমন্বয়হীনতার খেসারত দিলো আর্জেন্টিনা

রফিক ও রাহীর জবানবন্দি যে কারণে তাহসিন খুন

যৌন নিপীড়নের ভয়াল বিস্তার

৩ সিটিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কামরান, লিটন, সাদিক

সচেতন হওয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের

রাজনীতিতে ভালোবাসা দয়া বা করুণা বলে কিছু নেই

গাজীপুর সিটি নির্বাচন হাসান-জাহাঙ্গীর পাল্টাপাল্টি

খালেদা জিয়ার জীবন নিয়ে তৈরি হয়েছে শঙ্কা: রিজভী