‘শিক্ষা ব্যবস্থায় গঠনমূলক সংস্কার নিশ্চিত করতে হবে’

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ মার্চ ২০১৮, বৃহস্পতিবার
আমাদের দেশে শিক্ষার্থী যত তার চেয়ে বেশি পরীক্ষার্থী। প্রশ্ন ফাঁস নিঃসন্দেহে দুঃখজনক। এতে শিক্ষা ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলো মানের দিক দিয়ে অনেক নিচে। কারণ তারা ব্যবসায়িক মনোভাব নিয়ে কাজ করে। শিক্ষা ব্যবস্থায় আসলে বড় ধরনের গলদ রয়েছে। তাই শিক্ষা ব্যবস্থায় গঠনমূলক সংস্কার নিশ্চিত করতে হবে। মঙ্গলবার মিরপুর সেনানিবাসে ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ (এনডিসি)-তে অনুষ্ঠিত ‘ভিশন ২০৪১ এর আলোকে বাংলাদেশে শিক্ষা ক্ষেত্রে সংস্কার’ শীর্ষক একটি সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন।
এতে অংশগ্রহণকারীদের প্রশ্নোত্তর পর্বে ওঠে আসে বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থার নানা অসংগতি ও চিত্র। প্রশ্ন ওঠে বাংলা ভাষার মিশ্রণ নিয়েও। এতে বাংলা ভাষার গুণগত মান ধ্বংস হচ্ছে বলে জানানো হয়। এমনকি মাদরাসায় আজও কেন উর্দু ভাষায় শিক্ষা দেয়া হচ্ছে তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন অংশগ্রহণকারীরা। এ সময় বলা হয়, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে শুদ্ধ প্রমাণের জন্য অন্তত আমাদের বাঙালি থাকতে হবে। যদিও আমরা এখনও বাঙালি রয়েছি। অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবীসহ দেশি-বিদেশি উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া বন্ধুপ্রতিম ১২টি দেশের ২২ জন উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তাসহ ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স ২০১৮ এর ৭৫ জন প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তা এবং ক্যাপস্টোন কোর্স ২০১৮/১ এর ৩৪ জন ফেলোগণ সেমিনারে অংশ নেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস প্রফেসর ড. এটিএম আনিসুজ্জামান।
ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের কমান্ড্যান্ট লে. জেনারেল চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী সেমিনারের উদ্বোধন করেন। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানিয়েছে, অনুষ্ঠানে প্রফেসর ড. এটিএম আনিসুজ্জামান তার সমাপনী বক্তব্যে ভিশন ২০৪১ এর আলোকে শিক্ষাক্ষেত্রে সংস্কারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিক, চ্যালেঞ্জসমূহ, সম্ভাব্যতা ও সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তিনি এধরনের সমসাময়িক বিষয়ে সেমিনার আয়োজনের জন্য ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজকে ধন্যবাদ জানান। জেনারেল চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী তার উদ্বোধনী বত্তৃতায় বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকারের ‘ভিশন ২০২১’ সমপ্রসারিত হয়ে পরিণত হয়েছে ‘ভিশন ২০৪১’-এ। ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়িত হলে বাংলাদেশ একটি শান্তিপূর্ণ, উন্নত ও সুখী জাতিতে পরিণত হবে। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও ক্যাম্পেইন ফর পপুলার এডুকেশন এর নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী, প্রফেসর ইমেরিটাস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ড. একে আজাদ চৌধুরী, সাবেক সচিব ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘরের তত্ত্বাবধায়ক মো. নজরুল ইসলাম খান এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. কায়কোবাদ ভিশন ২০৪১ এর আলোকে প্রাথমিক শিক্ষা, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা এবং কারিগরি শিক্ষা ক্ষেত্রে সংস্কারের বিষয়ে তাদের গবেষণা পত্র উপস্থাপন করেন। সেমিনার সঞ্চালন করেন কলেজের সিনিয়র অনুষদ সদস্য রিয়ার এডমিরাল মুহাম্মদ আনওয়ারুল ইসলাম।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাংলাদেশে বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন নিশ্চিতে মার্কিন কংগ্রেসে রেজ্যুলেশন পাস

‘সরকার আর ১৫ দিন ক্ষমতায়, বেআইনি আদেশ মানবেন না’

ড. কামাল হোসেনের গাড়িবহরে হামলা

খামোশ বললেই জনগণ খামোশ হবে না

সিইসির নির্দেশিত তদন্ত ফল প্রকাশ পাবে কি?

চলে গেলেন আমজাদ হোসেন

সিলেটে রচিত হলো ইতিহাস

কুমিল্লা কারাগারে অনশনে মনিরুল হক চৌধুরী

সারা দেশে ধরপাকড় অব্যাহত

রাখাইনে সেনা অভিযানকে গণহত্যা আখ্যা দিলো মার্কিন কংগ্রেস

নির্বাচন ঘনিয়ে আসায় বেড়েছে দমনপীড়ন

পাবনায় চলন্ত ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে নিহত ৩

শ্রদ্ধা ভালোবাসায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ

নিরাপত্তা চেয়ে বিএনপির প্রার্থী জহির উদ্দিন স্বপনের জিডি

শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত যুদ্ধ করে যাবো

এহিয়াকে চ্যালেঞ্জ মুহিব ও এনামের