‘শিক্ষা ব্যবস্থায় গঠনমূলক সংস্কার নিশ্চিত করতে হবে’

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ মার্চ ২০১৮, বৃহস্পতিবার
আমাদের দেশে শিক্ষার্থী যত তার চেয়ে বেশি পরীক্ষার্থী। প্রশ্ন ফাঁস নিঃসন্দেহে দুঃখজনক। এতে শিক্ষা ক্ষেত্রে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলো মানের দিক দিয়ে অনেক নিচে। কারণ তারা ব্যবসায়িক মনোভাব নিয়ে কাজ করে। শিক্ষা ব্যবস্থায় আসলে বড় ধরনের গলদ রয়েছে।
তাই শিক্ষা ব্যবস্থায় গঠনমূলক সংস্কার নিশ্চিত করতে হবে। মঙ্গলবার মিরপুর সেনানিবাসে ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজ (এনডিসি)-তে অনুষ্ঠিত ‘ভিশন ২০৪১ এর আলোকে বাংলাদেশে শিক্ষা ক্ষেত্রে সংস্কার’ শীর্ষক একটি সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। এতে অংশগ্রহণকারীদের প্রশ্নোত্তর পর্বে ওঠে আসে বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থার নানা অসংগতি ও চিত্র। প্রশ্ন ওঠে বাংলা ভাষার মিশ্রণ নিয়েও। এতে বাংলা ভাষার গুণগত মান ধ্বংস হচ্ছে বলে জানানো হয়। এমনকি মাদরাসায় আজও কেন উর্দু ভাষায় শিক্ষা দেয়া হচ্ছে তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন অংশগ্রহণকারীরা। এ সময় বলা হয়, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে শুদ্ধ প্রমাণের জন্য অন্তত আমাদের বাঙালি থাকতে হবে। যদিও আমরা এখনও বাঙালি রয়েছি। অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবীসহ দেশি-বিদেশি উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া বন্ধুপ্রতিম ১২টি দেশের ২২ জন উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তাসহ ন্যাশনাল ডিফেন্স কোর্স ২০১৮ এর ৭৫ জন প্রশিক্ষণার্থী কর্মকর্তা এবং ক্যাপস্টোন কোর্স ২০১৮/১ এর ৩৪ জন ফেলোগণ সেমিনারে অংশ নেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস প্রফেসর ড. এটিএম আনিসুজ্জামান।
ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজের কমান্ড্যান্ট লে. জেনারেল চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী সেমিনারের উদ্বোধন করেন। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) জানিয়েছে, অনুষ্ঠানে প্রফেসর ড. এটিএম আনিসুজ্জামান তার সমাপনী বক্তব্যে ভিশন ২০৪১ এর আলোকে শিক্ষাক্ষেত্রে সংস্কারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিক, চ্যালেঞ্জসমূহ, সম্ভাব্যতা ও সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে আলোকপাত করেন। তিনি এধরনের সমসাময়িক বিষয়ে সেমিনার আয়োজনের জন্য ন্যাশনাল ডিফেন্স কলেজকে ধন্যবাদ জানান। জেনারেল চৌধুরী হাসান সারওয়ার্দী তার উদ্বোধনী বত্তৃতায় বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকারের ‘ভিশন ২০২১’ সমপ্রসারিত হয়ে পরিণত হয়েছে ‘ভিশন ২০৪১’-এ। ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়িত হলে বাংলাদেশ একটি শান্তিপূর্ণ, উন্নত ও সুখী জাতিতে পরিণত হবে। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ও ক্যাম্পেইন ফর পপুলার এডুকেশন এর নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে চৌধুরী, প্রফেসর ইমেরিটাস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ড. একে আজাদ চৌধুরী, সাবেক সচিব ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মৃতি জাদুঘরের তত্ত্বাবধায়ক মো. নজরুল ইসলাম খান এবং বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. কায়কোবাদ ভিশন ২০৪১ এর আলোকে প্রাথমিক শিক্ষা, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা এবং কারিগরি শিক্ষা ক্ষেত্রে সংস্কারের বিষয়ে তাদের গবেষণা পত্র উপস্থাপন করেন। সেমিনার সঞ্চালন করেন কলেজের সিনিয়র অনুষদ সদস্য রিয়ার এডমিরাল মুহাম্মদ আনওয়ারুল ইসলাম।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

অক্টোবরে নির্বাচনকালীন সরকার: ওবায়দুল কাদের

বাংলাদেশী ভক্তদের জন্য মেসির ভিডিও (ভিডিওসহ)

তিন সিটি নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন ১২জন

জর্জটাউন ইউনিভার্সিটিতে বাংলাদেশ ডেমোক্রেসি কনফারেন্স ২০ জুন

সাবেক দুই পর্নো তারকার ৬ মাসের জেল

যে যুবতী ফুটবল মাঠে পোশাকের তোয়াক্কা করেন না

যেমন করে নির্যাতিত হন প্রিসিয়াসরা

জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল ছেড়েছে যুক্তরাষ্ট্র

সরাসরি সম্প্রচার চলাকালে নারী সাংবাদিককে অকস্মাৎ চুমু, অতঃপর

সংঘর্ষের জেরে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে উত্তেজনা

‘সেটা আসলে এখনই বলতে পারছি না’

৪ মিনিটে মিশরের জালে আরো ২ গোল রাশিয়ার

কলম্বিয়াকে হারিয়ে জাপানের ইতিহাস

প্রচারণায় কেন্দ্রীয় নেতারা উত্তেজনা বাড়ছে

গ্যালারিতে অন্য আকর্ষণ

উছিলা বিশ্বকাপ উদ্দেশ্য ভিন্ন