চতুর্থ মেয়াদে চ্যান্সেলর মার্কেল

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৪ মার্চ ২০১৮, বুধবার
চতুর্থ বারের মতো জার্মানির চ্যান্সেলরের শপথ গ্রহণ করেছেন অ্যাঙ্গেলা মার্কেল। বুধবার দেশটির পার্লামেন্ট রিকসট্যাগে ৩৬৪-৩১৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন তিনি। এদিন ভোটদানে বিরত ছিলেন পার্লামেন্টের ৯ সদস্য। এর মধ্য দিয়ে জার্মান রাজনীতিতে প্রায় অর্ধ বছরের অচলাবস্থার অবসান ঘটলো। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি। খবরে বলা হয়, রিকসট্যাগে গোপন ব্যালটে ভোট দেন জার্মানির আইন প্রণেতারা। এদিন সদ্যগঠিত মধ্যবামপন্থী জোটের ৩৫ সদস্য মার্কেলের বিরুদ্ধে ভোট দেন। জার্মানিতে মার্কেলের দল ও সোস্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এসপিডি) জোটকে অনেকে ব্যাঙ্গাত্মকভাবে ‘গ্রোকো’ নামে অভিহিত করেছেন।
এর আগে গত সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে কোন দল এককভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে ব্যর্থ হওয়ায় অ্যাঙ্গেলা মার্কেলকে দায়িত্ব পালন অব্যাহত রাখার নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট  ফ্রাঙ্ক ওয়াল্টার স্টেইনমিয়ার।
ডয়েচে ভেলের খবরে বলা হয়, নির্বাচনে ম্যার্কেলের কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী ছিল না। ভোটাভুটির সময় প্রথমবারের মতো মার্কেলের মা হেরলিন্ড কাজনারও স্বামী ইওয়াখিম সাওয়ার উপস্থিত ছিলেন। ম্যার্কেলের ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেটেকি দল,(সিডিইউ) বাভারিয়া রাজ্যে তাদের অংশীদার দল সিএসইউ এবং সরকার গঠনে জোটসঙ্গী দল সামাজিক গণতন্ত্রী, এসপিডি দলের মোট আসন সংখ্যা ৩৯৯। এরপর স্থানীয় সময় দুপুর ১২ টায় প্রেসিডেন্ট ফ্রাংক ভাল্টার স্টাইনমায়ারের কার্যালয়ে চ্যান্সেলর হিসেবে শপথ নেন মার্কেল। সন্ধ্যায় মন্ত্রীদের শপথ নেয়ার কথা রয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগ দিতে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী

বেনাপোল সীমান্ত থেকে বিপুল পরিমান অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার

চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ প্রকাশ্যে অস্ত্রধারী সেই ছাত্রলীগ নেতা গ্রেপ্তার

যুক্তরাষ্ট্রে নারী বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ৩

ব্রিজের নিচ থেকে অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার

দাবি ও ১২ লক্ষ্য চূড়ান্ত করেছে বিএনপি

দুর্বৃত্তের গুলিতে দুই ইউপিডিএফ কর্মী নিহত

তারা কেন এত উদ্বিগ্ন হয়ে উঠছেন?

দৃশ্যপটে বৃহত্তর জোট এক মঞ্চে উঠছেন বিরোধী নেতারা

সিনহার বই নিয়ে বাহাস

কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধুর প্রথম দিককার চিঠি

নিউ ইয়র্কে দুটি অ্যাওয়ার্ড পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

পবিত্র আশুরা আজ

তারুণ্যের ব্যর্থতায় লজ্জার হার

খালেদা জিয়ার অনুপস্থিতিতে বিচার চলবে

মানবাধিকার ও নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে দুই সংস্থার উদ্বেগ