ব্যাংককে ভাষা দিবস উদযাপন

বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা ইউনেস্কোর

প্রবাসীদের কথা

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বৃহস্পতিবার
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলাদেশের প্রশংসা করেছে ইউনেস্কো। জাতিসংঘের সংস্থাটির এশিয়া-প্যাসিফিকের আঞ্চলিক পরিচালক মাকি হায়াশিকাওয়া ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি আদায়ে বাংলাদেশের ভূমিকা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করেন। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়, বুধবার ব্যাংককস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস ও ইউনেস্কোর এশিয়া-প্যাসিফিরে আঞ্চলিক কার্যালয়ের যৌথ আয়োজনে ‘ভাষা শহীদ দিবস’ অনুষ্ঠানে এ প্রশংসা করেন তিনি। ১৯৯৯ সালে জাতিসংঘের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ইউনেস্কো ২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। এরপর থেকে প্রতিবছর দিনটি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালন করছে বিশ্বের দেশগুলো। দূতাবাসটি ইউনেস্কো এশিয়া-প্যাসিফিক আঞ্চলিক কার্যালয় প্রাঙ্গনে একটি উচ্চ পর্যায়ের প্যানেল আলোচনা এবং বহুভাষী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে যেখানে ২০টির বেশি দেশের রাষ্ট্রদূত এবং সাংস্কৃতিক কর্মীরা তাদের মাতৃভাষায় বহুভাষিক উপস্থাপনা প্রদর্শন করেন। ভারত, চীন, রাশিয়া, ফ্রান্স, কলম্বিয়া, মেক্সিকো, বেলজিয়াম, নাইজেরিয়া, কাজাখস্তান ও সুদানের দূতাবাস, থাইল্যান্ডের ন্যাশনাল ইউনেস্কো কমিশনের মহাসচিব এসআইএল ইন্টারন্যাশনাল এবং থামাসেট বিশ্ববিদ্যালয় প্যানেল আলোচনায় অংশ নেয়। তারা আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পালনের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন।
১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলনের মহান শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন থাইল্যান্ডে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সাঈদা মুনা তাসনিম। এছাড়া ১৯৪৮ থেকে ১৯৫২ সাল পর্যস্ত কারাগারে থেকেও ভাষা আন্দোলনে অনুপ্রেরণা ও নেতৃত্ব দেয়ার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তিনি। তিনি এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে ইউনেস্কো এবং অন্যান্য আঞ্চলিক প্রতিষ্ঠানসমূহকে ঢাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পৃষ্ঠপোষকতায় প্রতিষ্ঠিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান। যাতে বিশ্বের সাত হাজারের বেশি ভাষা সংরক্ষণ ও গবেষণায় এটি সক্ষম হতে পারে। এছাড়া রাষ্ট্রদূত তাসনিম সংস্কৃতির বৈচিত্র্য বিকাশ ও বহুভাষিক দক্ষতা অর্জনের জন্য শিশুদের প্রতি বিশেষ যতœ এবং সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মসজিদ-উল নববীর ইমাম কারাগারে ‘মারা গেছেন’

জনগণের আস্থার মর্যাদা সমুন্নত রাখতে হবে

ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র পদে ভোট ২৮শে ফেব্রুয়ারি

এমন মৃত্যু আর কত?

এক কিংবদন্তির প্রস্থান

ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে বিএনপির ১০ কমিটি

স্পাইসগার্ল টি-শার্ট এবং বাংলাদেশের গার্মেন্ট খাত

ইভিএমের কারচুপি জেনে ফেলায় খুন হন বিজেপি নেতা!

মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহালের দাবিতে শাহবাগে ফের অবরোধ

ইজতেমা নিয়ে আদালতে আসা লজ্জাকর

তিনি সজ্জন, ভালো মানুষ

দেশে গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একসঙ্গে এগিয়ে যাবে- প্রধানমন্ত্রী

সংরক্ষিত আসনে এমপি হতে চান ব্যারিস্টার মৌসুমী কবিতা

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আফজালের সব সম্পদ জব্দের নির্দেশ

মির্জাপুরে বিএনপির ৪০ নেতাকর্মী কারাগারে

মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সুবিধা আরো বাড়লো