জুতা পায়ে প্রভাত ফেরি

অনলাইন

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি | ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বুধবার, ৬:৪৩
বরগুনার আমতলীতে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রভাতফেরিতে জুতা পায়ে অংশ নিয়েছেন বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও চাকরিজীবীরা। এতে সাধারণ মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলা পরিষদের সামনে থেকে প্রভাত ফেরি শুরু হয়। ওই প্রভাতফেরিতে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সামাজিক সংগঠনের লোকজন অংশগ্রহণ করেন। আমতলী বন্দর হোসাইনিয়া ফাজিল মাদ্রাসা, আমতলী এমইউ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, আমতলী একে হাই সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক ব্যবস্থাপকসহ বিভিন্ন চাকরিজীবীরা জুতা পায়ে প্রভাত ফেরিতে অংশগ্রহণ করে।
স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন বলেন, জুতা পায়ে প্রভাত ফেরিতে অংশগ্রহণ করায় শহীদদের অবমাননা করা হয়েছে। যারা জুতা পায়ে প্রভাত ফেরিতে অংশগ্রহণ করেছে, তাদের বিচার দাবি করছি। মানুষের মাঝে দেশপ্রেম হারিয়ে গেছে। নাহলে এরকম হওয়ার কথা নয়।আমতলী শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের ব্যাবস্থাপক মো. শফিকুল ইসলাম বখতিয়ার দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমি জানতাম না জুতা পায়ে প্রভাতফেরি করা যায় না।
এখন অনেকে জুতা পড়ে প্রভাতফেরিতে যায়, তাই আমিও গিয়েছি। আমতলী বন্দর হোসাইনিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোহাম্মদ ইউনুছ হাওলাদার জুতা পায়ে প্রভাত ফেরিতে অংশ নেয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, আমার ভুল হয়েছে। পরে জুতা খুলে ফেলেছি। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. মজিবুর রহমান বলেন, জুতা পায়ে যারা প্রভাতফেরিতে অংশগ্রহণ করেছে তারা প্রকৃত দেশপ্রেমিক না। তারা অন্যায় মন্তব্য করেছে, তাদের বিচার হওয়া উচিৎ।

আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান বলেন, জুতা পায়ে যারা প্রভাত ফেরি করেছে, তারা অজ্ঞ। যদি তারা বুঝে করে থাকে, তবে শহীদদের অবমাননা করা হয়েছে। আর যদি না বুঝে করে থাকে তবে অজ্ঞতার পরিচয় দিয়েছে।
 



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Akbar Ali

২০১৮-০২-২২ ০৬:৫১:১১

বিষয়ের পক্ষে বিপক্ষে রেফারেন্সসহ বলুন, দেশবাসী উপকৃত হবে। অহেতুক ইস্যু সৃষ্টি করে ফকিহ্‌ সাজার ভান করবেন না। এমন আচরণে অংশ গ্রহণকারীগণের মনে নেতিবাচক মনোভাব গড়ে উঠে।

robiul

২০১৮-০২-২১ ১০:৫৬:৫৬

সারা বছর শহিদ মিনার জুতা দিয়ে পাড়ায় কোন অবমাননা হয়না। আরে কাবা শরীফে জুতা দিয়ে তাওয়াফ করে এতে কাবার সম্নান নষ্ট হয় না।

জয়

২০১৮-০২-২১ ২৩:২২:৫৯

আমরা শহিদেরকে স্মরণ করবো অন্তর থেকে -----জুতো পায়ে দিয়ে বা মাথায় নিয়ে নয় ----

Quazi Nasrullah

২০১৮-০২-২১ ২২:০৫:০৬

Absolute they commit wrong. but, when we see on-duty govt. people comes with uniform boot, we feel confused.... ... ...

আপনার মতামত দিন

দোহারে বিএনপির মিছিলে পুলিশের লাঠিচার্জ, প্রার্থীসহ আটক ১০

পুলিশ প্রটোকলে আইনমন্ত্রীর গণসংযোগ

যত বাধাই আসুক নির্বাচনে থাকব

নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নির্মোহ ও নিরপেক্ষ: এইচ টি ইমাম

আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার হয়ে রিকশাচালককে মারধরকারী নারী যা বললেন

‘২০১৪-তে মানুষ ভোট দিয়েছে বলেই বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল’

টাইমের বর্ষসেরা ব্যক্তিত্বের তালিকায় শহিদুল আলম

সিলেটে ঐক্যফ্রন্টের পথসভায় বাধা, মাইক খুলে নিয়েছে পুলিশ

নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন বিএনপির তমিজ উদ্দিন

‘ইসিতে অভিযোগ জানিয়ে ফেরার পথে বিএনপি নেতা আটক’

ডিসিদের রিটার্নিং কর্মকর্তা নিয়োগ কেন অবৈধ নয়

আজই অনাস্থা ভোটের মুখে পড়ছেন তেরেসা মে

নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির নতুন অভিযোগ

নির্বাচন যেনো দুধ-ভাত খেলা: ববি হাজ্জাজ

সিইসি অসহায়, বিব্রত: সেলিমা রহমান

রোহিঙ্গাদের অবস্থার উন্নতি ও নৃশংসতায় দায়ীদের বিচার চায় যুক্তরাষ্ট্র