খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি হংকং বিএনপির

প্রবাসীদের কথা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, বৃহস্পতিবার
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদার বিরুদ্ধে বিশেষ আদালতের পাঁচ বছরের সাজা ও কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদ জানিয়েছে দলটির হংকং প্রবাসী শাখা। হংকং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আবু বকর সিদ্দিকির সভাপতিত্বে রোববার হংকং সিটির এক হোটেলে এ প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সভায় হংকং বিএনপির উপদেষ্টা দেওয়ান সাইফুল আলম মাসুদ প্রধান অতিথি, হংকং বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খাইরুল ইসলাম নিজামী স্বপন প্রধান বক্তা ছিলেন। বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের তিনবারের নির্বাচিত সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক দল বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া গণতন্ত্র, মানবাধিকার, মৌলিক অধিকার পুনরুদ্ধার আন্দোলনে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। যখন এ আন্দোলন একটি কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যের দ্বারপ্রান্তে তখন খালেদা জিয়াকে অপমানিত ও হেনস্থা করতে ভিত্তিহীন মামলায় রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের মাধ্যমে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। এখন তাকে আগামী জাতীয় নির্বাচন থেকে বাইরে রাখার পাঁয়তারা করছে সরকার। বক্তারা বলেন, এ রায় কোনো আইনি রায় নয়, সরকার নির্দেশিত রাজনৈতিক রায়। দেশবাসী এ রায় প্রত্যাখ্যান ও তার মুক্তি চায়। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের দাবিতে ঐক্যবদ্ধ হতে তারা সবার প্রতি আহ্বান জানান। হংকং বিএনপির উপদেষ্টা মোশাররফ হোসেনের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভায় নাহিদুল ইসলাম আজমল, আমিন, এসএম মহিউদ্দিন, সৈয়দ একরাম এলাহি নাসের প্রমুখ বক্তব্য দেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দেশে ফিরেছেন ভূমধ্যসাগরে প্রাণে বেঁচে যাওয়া ১৫ বাংলাদেশি

শাহজালালে সোয়া তিন কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ, যাত্রী আটক

ইউরেনিয়াম উৎপাদন ৪ গুণ বাড়িয়েছে ইরান, বাড়ছে উত্তেজনা

বহিস্কৃত ছাত্রলীগ নেত্রী জারিনের আত্মহত্যার চেষ্টা!

বিশ্ববিদ্যালয় পালানো শিক্ষকরা

ধনবাড়ীতে স্বামীর নির্যাতনে অন্তসত্ত্বা গৃহবধূর মৃত্যু

‘গানে সেই আবেদনটা খুঁজে পাওয়া যায় না’

মধুর ক্যান্টিনের সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রলীগের ৫ জনকে বহিষ্কার

বালিশে ওলটপালট চাকরির বাজার!

ঢাকায় বালিশ প্রতিবাদ

প্রধানমন্ত্রীর সফরে নিরাপত্তা সতর্কতা প্রত্যাহার চাইবে ঢাকা

শিশুটিকে দত্তক পেতে চতুর্মুখী লড়াই

রিকশাচালকের বিরুদ্ধে ২৭ লাখ টাকার চেক মামলা

ব্যাংকে নগদ টাকার সংকট সরকারি আমানত পেতে তোড়জোড়

স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের পর ভেন্টিলেটর দিয়ে ফেলে দিলো পুলিশ সদস্য

সংসদ যেন একদলীয় করে তোলা না হয়