সিলেটে পুলিশের মামলায় আসামি বিএনপির সিনিয়র নেতা, সাংবাদিকরাও

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪৭
সিলেটে পুলিশের মামলায় আসামি করা হয়েছে বিএনপির জেলা ও মহানগরের সিনিয়র নেতাদের। একই সঙ্গে দায়িত্ব পালনরত সাংবাদিকদেরও ওই মামলায় আসামি করা হয়েছে। সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করায় ক্ষোভ বিরাজ করছে। এদিকে বিএনপির দায়িত্বশীল নেতারা মামলার আসামি হওয়ার কারণে আন্দোলন-সংগ্রামে কিছুটা পিছু হটেছে বিএনপি। বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের দিন সিলেটের রাজপথে সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ৫৭ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেছে। এ মামলায় আসামি করা হয়েছে দুই শতাধিক নেতাকর্মীকে। মামলার আসামিদের মধ্যে রয়েছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক ও স্বেচ্ছাসেবক দলের জেলা আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট শামসুজ্জামান জামান, জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসেইন, সাধারণ সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম, মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকি, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি অ্যাডভোকেট সাঈদ আহমদ, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি নুরুল আলম সিদ্দিকী খালেদ ও সেক্রেটারি আবু সালেহ মো. লোকমান।
কোতোয়ালি থানার এসআই অনুপ কুমার চৌধুরী বাদী হয়ে দায়ের করা মামলার অপর আসামিরা হচ্ছেন-বিএনপি নেতা জিয়াউল গণি আরেফিন জিল্লুর, আব্দুল ফাত্তাহ বকশি, অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান, ইমদাদ হোসেন চৌধুরী, মাহবুব কাদির শাহী, হুমায়ুন আহমদ মাসুক, মিফতাহ সিদ্দিকী, মহবুব চৌধুরী, আলহাজ শেখ মকন মিয়া, শাহ জামাল নুরুল হুদা, শাকিল মুরশেদ, অ্যাডভোকেট মুজিবুর রহমান, সাহেদ বখত, মামুন ইবনে রাজ্জাক রাসেল, আকতার আহমদ, রুমেল শাহ, লিটন কুমার দাশ নান্টু, এমদাদুল হক স্বপন, সৈয়দ সারোয়ার রেজা, আব্দুর রকিব চৌধুরী, আতিকুর রহমান, মাজহারুল ইসলাম মাজু, আসাদ আহমদ, আয়াজ আলী, আমির উদ্দিন, রায়হান, সামাদ আহমদ, মকসুদ, রাসেল, মাসুদ গাজী, আউয়াল, নাবিল রাজা চৌধুরী, সাহেদ আলী, মুহিত, সজীব, শামীম, রাহি, রাজু আহমদ, আফসর খান, বাপ্পি, সজীব আহমদ, সৈয়দ হারুনুর রশিদ, অ্যাডভোকেট মুয়াজ্জেম হোসেন, আব্দুর রহিম, আল আমিন, জাহিদুল ইসলামসহ অজ্ঞাত আরো ১০০ থেকে ১৫০ জন। এ মামলায় দৈনিক শ্যামল সিলেটের ফটো সাংবাদিক মুহিতকেও আসামি করা হয়েছে। মুহিত ওই দিন ক্যামেরা নিয়ে দায়িত্ব পালন করছিলেন। পরে শ্যামল সিলেট পত্রিকায় তার নামে ছবি প্রকাশিত হয়েছে। এ মামলায় সাংবাদিকদের আসামি করায় ক্ষোভ বিরাজ করছে। তবে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার সেকেন্ড অফিসার এস আই ফায়াজ উদ্দিন ফয়েজ জানিয়েছেন, ভিডিও ফুটেজ দেখে সংশ্লিষ্টদের আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে দুইজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলে জানান তিনি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বিনম্র শ্রদ্ধায় বীর শহীদদের স্মরণ

বিপর্যয়ের মুখে তেরেসা মে

অনেক বাস হাওয়া, দুর্ভোগে রাজধানীবাসী

জাপায় কেন এই অস্থিরতা?

অনলাইনে ডলার বিক্রির নামে প্রতারণা

হঠাৎ বেড়েছে গুলির ঘটনা

ওবায়দুল কাদেরকে কেবিনে নেয়া হয়েছে

ডাক বিভাগের ‘নগদ’-এর কার্যক্রম উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

সিনেটরকে ডিম মারা প্রসঙ্গে যা বললেন ‘ডিম বালক’

মুক্তি কিসে স্বৈরশাসনে নাকি গণতন্ত্রের পুনঃউদ্ভাবনে?

বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ বিশ্বদরবারে প্রতিষ্ঠিত হতো না

৪৮ বছর পরও আমরা এমনটি আশা করিনি

বঙ্গবন্ধুর স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত মাহবুব তালুকদার

বিএনপি নেতিবাচক রাজনীতি না করলে দেশের আরো উন্নতি হতো

খালেদা জিয়াকে মুক্ত করাই বিএনপির অঙ্গীকার

বিনম্র শ্রদ্ধায় সারা দেশে স্বাধীনতা দিবস পালিত