সেই আক্ষেপ এখনো পোড়ায় ফার্র্ডিনান্ডকে

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৪ জানুয়ারি ২০১৮, রোববার
তিনবছর হলো ফুটবলকে বিদায় জানিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক অধিনায়ক রিও ফার্ডিনান্ড। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ৬টি প্রিমিয়ার লীগ, ১টি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ, ২টি লীগ কাপ জয়ের কৃতিত্ব রয়েছে ফার্ডিনান্ডের। তার অধিনায়কত্বে ম্যানইউকে ঘরোয়া ফুটবলে ৮টি শিরোপা জয়ের কৃতিত্ব দেখিয়েছেন। তবে এতো কিছু জয়ের পরও এফএ কাপের শিরোপা জিততে না পারায় এখনো পোড়ায় সাবেক এ ইংলিশ অধিনায়ককে। অবসরের তিন বছর পরে এসেও এ ব্যাথা ভুলতে পারছেন না তিনি। ফার্ডিনান্ড বলেন, ম্যানইউতে আমার অনেক সুখের স্মৃতি রয়েছে।
চ্যাম্পিয়ন্স লীগে আমার অধীনে তিনবার ফাইনাল খেলে ম্যানইউ। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ২০০৮ এ  শিরোপা জিতলেও ২০০৯ ও ২০১১-তে বার্সেলোনার কাছে ফাইনালে হার দেখে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এসব স্মৃতি আমি এখন আর মনে করতে চাচ্ছি না। তবে ২০০৫-এ এফএ কাপের ফাইনালে আর্সেনালের বিপক্ষে ম্যাচের দুঃসহ স্মৃতি যা আমি কখনো ভুলতে পারবো না। ওই ম্যাচে জয়ের অনেক সুযোগ পেয়েছিলাম আমরা। শেষ পর্যন্ত পেনাল্টিতে আর্সেনালের কাছে হারতে হয় আমাদের। ২০০৯-এ এফএ কাপের সেমিফাইনালেও এভারটনের কাছে হারের স্বাদ পায় ম্যানইউ। ফুটবলে অনেকের অনেক কিছু না জেতার আক্ষেপ থাকে। আমারও এফএ কাপের শিরোপা না জেতার আক্ষেপ চিরদিন। বাড়িতে আমার সব মেডেল বাক্সে রয়েছে। আমার এগুলোর দিকে তাকাতে ইচ্ছা করে না, কারণ আমার এর চেয়ে আরো বেশি মেডেল জেতা উচিত ছিল। ফার্ডিনান্ডের অধিনায়কত্বে শেষ ২০১৩-তে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের শিরোপা জয় করে ম্যানইউ। আর এটাও ফারগুসনের অধীনে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের শেষ প্রিমিয়ার লীগের শিরোপা। ঐ বছর  ফারগুসন অবসরে যাওয়ার পরের মৌসুমেও ম্যানইউতে ছিলেন ফার্ডিনান্ড। ফারগুসনের অধীনে ২০১৩তে ১১ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে শিরোপা জিতলেও পরের বার তালিকার সপ্তম স্থানে থেকে লীগ শেষ করে ম্যানইউ। একই খেলোয়ার নিয়ে লীগে এমন ফল পাওয়ায় রেড ডেভিলদের ঐ সময়ের কোচ ডেভিড ময়েসকে দায়ী করেন ফার্ডিনান্ড। খেলোয়াড়দের সঙ্গে ময়েসের সামঞ্জস্যতার অভাব ছিলো বলে দাবি করেন তিনি। প্রধান নির্বাহী ডেভিড গিল ও কোচ ফারগুসন চলে যাওয়ায় ম্যানইউ’র এমন করুন অবস্থা হয়েছে বলে মনে করেন তিনি। কারণ ফারগুসনের সঙ্গে দলের সব খেলোয়াড়ের ভালো বোঝাপড়া ছিলো। যেটা ময়েস এসে ধরে রাখতে পারেননি। ফারগুসন বিশ্বসেরা কোচদের একজন। ম্যানইউ তার বিকল্প আর কখনো খুঁজে পাবে কিনা এ নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন সাবেক এ অধিনায়ক। ভবিষ্যতের পরিকল্পনা নিয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বর্তমানে আমি বিটি স্পোর্টসের সঙ্গে কাজ করছি। তবে সুযোগ পেলে টেলিভিশনে খেলার বিতর্ক অনুষ্ঠানে কাজ করার ইচ্ছা রয়েছে আমার। কোচিংয়ে ক্যারিয়ার গড়ার ইচ্ছা আছে কি-না জানতে ছাইলে তিনি বলেন, হয়তো কোনো একদিন আমাকে যে কোনো দলের কোচ হিসেবে দেখতে পাবেন। তবে এখন আমি ঐ সব নিয়ে ভাবছি না।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

অভিযোগের পাহাড়, অসহায় ইউজিসি

প্রত্যাবাসন শুরু হচ্ছে না আজ

মৈত্রী এক্সপ্রেসে শ্লীলতাহানির শিকার বাংলাদেশি নারী

‘২০৬ নম্বর কক্ষে আছি, আমরা আত্মহত্যা করছি’

ট্রেনে কাটা পড়ে দুই পা হারালেন ঢাবি ছাত্র

পুলে যাচ্ছে সেই সব বিলাসবহুল গাড়ি

নীলক্ষেত মোড়ে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ, এমপির আশ্বাসে স্থগিত

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সফর সফল করতে নির্দেশনা

নেতাকর্মীরা জেলে থাকলে নির্বাচন হবে না: ফখরুল

তিন দিনের ধর্মঘটে এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা

ইডিয়ট বললেন মারডক

সহায়ক সরকারের রূপরেখা প্রণয়নের কাজ শেষ পর্যায়ে

২৩শে ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

বাসায় ফিরছেন মেয়র আইভী

‘আমাকে ইমোশনাল ব্ল্যাকমেইল করে’

জনগণ রাস্তায় নেমে ভোটাধিকার আদায় করবে: মোশাররফ