ছয় মাস আত্মগোপনে থাকার পর প্রকাশ্যে গুরুং

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১২ জানুয়ারি ২০১৮, শুক্রবার
দীর্ঘ ছয় মাসের বেশি আত্মগোপনে থাকার পর গোর্খা জন মুক্তি  মোর্চার নেতা বিমল গুরুং বৃহষ্পতিবার প্রকাশ্যে এসেছেন। খোদ রাজধানী দিল্লিতে সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছেন, দার্জিলিংয়ে স্থায়ী শান্তির লক্ষ্যে তিনি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি। তিনি মনে করেন, একমাত্র আলোচনার মাধ্যমেই সমাধানে পৌঁছনো সম্ভব। ২০১৭ এর জুন মাস থেকে গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে জ্বলে উঠেছিল দার্জিলিং। গুরুং সমর্থকদের গুলিতে পুলিশ কর্মী অমিতাভ মালিকের মৃত্যুর ঘটনায় আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল পরিস্থিতি। সেই থেকেই অজ্ঞাতবাসে ছিলেন গুরুং।
পশ্চিমবঙ্গের সিআইডির গোয়েন্দারা একাধিকবার তার ডেরায় হানা দিয়েও তাকে ধরতে পারেন নি। গুরুংয়ের বিরুদ্ধে ৩৫০ এর বেশি মামলা রয়েছে। এমনকি রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগে ইউএপিএ আইনেও মামলা রয়েছে গুরুংয়ের বিরুদ্ধে। সরকার লুকআইট নোটিশও জারি করেছিলেন। কিন্তু সকলের চোখকে ফাকি দিয়ে গুরুং নয়াদিল্লিতে এসেছেন। সেখানেই কোনও সেফ হাউসে তিনি রয়েছেন। দীর্ঘদিন আত্মগোপনে থাকার ফলে দার্জিলিংয়ে এখন গুরুংয়ের ক্ষমতা প্রায় নেই বললেই চলে। বিকল্প হিসেবে উঠে এসেছেন বিনয় তামাং-অনীত থাপারা। বিমল গুরুংয়ের অনুগামীরাও এখন এদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। রাজ্য সরকার বিনয় তামংকে জিটিএ-র দায়িত্বে বসিয়েছেন। এই অবস্থায় গোপন জায়গা থেকে ভিডিও বার্তায় ক্রমাগত হুমকি দিয়ে এলেও দর্জিলিংয়ে তার কোনও প্রভাব পড়েনি। মাত্র তিন মাস আগেই গুরুং বলেছিলেন, তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। তবে তিনি যে কোনও অবস্থাতেই রাজ্য সরকারের সামনে মাথা নোয়াবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়েছিলেন। কিন্তু বৃহষ্পতিবার সুর বদল করে গুরুং বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে তাদের কোনও সংঘাত নেই। কিন্তু দুটি জায়গার সংস্কৃতি, ঐতিহ্যে পার্থক্য আছে। গুরুং বলেছেন, তিনি সংবিধানের মধ্যে থেকেই তাদের দাবি পূরণ করতে চান। গোর্খাদের জন্য তিনি তার পরিচিতি ও অধিকার আদায়ের লড়াই চালিয়ে যাবেন। তিনি আরও বলেছেন, বিচার ব্যবস্থার উপর তার আস্থা আছে এবং যে কোনও স্বাধীন সংগঠনের সঙ্গে সহযোগিতা করতে রাজি। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের একতরফা সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে গুরুং বলেছেন, সরকারের একতরফা মনোভাবের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতেই এই আন্দোলনের জন্ম। তবে পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব বলেছেন, বিচারের মুখোমুখি হতেই হবে বিমল গুরুংকে।

[এফএম]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

অভিযোগের পাহাড়, অসহায় ইউজিসি

প্রত্যাবাসন শুরু হচ্ছে না আজ

মৈত্রী এক্সপ্রেসে শ্লীলতাহানির শিকার বাংলাদেশি নারী

‘২০৬ নম্বর কক্ষে আছি, আমরা আত্মহত্যা করছি’

ট্রেনে কাটা পড়ে দুই পা হারালেন ঢাবি ছাত্র

পুলে যাচ্ছে সেই সব বিলাসবহুল গাড়ি

নীলক্ষেত মোড়ে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ, এমপির আশ্বাসে স্থগিত

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সফর সফল করতে নির্দেশনা

নেতাকর্মীরা জেলে থাকলে নির্বাচন হবে না: ফখরুল

তিন দিনের ধর্মঘটে এমপিওভুক্ত শিক্ষকরা

ইডিয়ট বললেন মারডক

সহায়ক সরকারের রূপরেখা প্রণয়নের কাজ শেষ পর্যায়ে

২৩শে ফেব্রুয়ারির মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন

বাসায় ফিরছেন মেয়র আইভী

‘আমাকে ইমোশনাল ব্ল্যাকমেইল করে’

জনগণ রাস্তায় নেমে ভোটাধিকার আদায় করবে: মোশাররফ