‘বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার সম্পর্ক আরো গভীর হবে’

শিক্ষাঙ্গন

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | ১০ জানুয়ারি ২০১৮, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৩৮
ভারত সরকার ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যকার যৌথ শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরো গভীর হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা। আজ বুধবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউট এবং ইন্দিরা গান্ধী কালচারাল সেন্টারের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত বিশ্ব হিন্দি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. শিশির ভট্টাচার্য্য। অনুষ্ঠানে হিন্দি ম্যাগাজিনের দ্বিতীয় সংস্করণের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। এছাড়া হিন্দি ভাষা কোর্সের কৃতী শিক্ষার্থীদের অ্যাওয়ার্ড ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।
এর আগে ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সঙ্গে তার কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।
ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, হিন্দি বর্তমানে শুধু ভারত নয়, বরং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের জনপ্রিয় ভাষা। নাটক ও সিনেমার মাধ্যমে এই ভাষা জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হিন্দি ভাষা কোর্সের উন্নয়নে তিনি ভারত সরকারের সহযোগিতা চান। এসময় তিনি হিন্দি আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটের হিন্দি ভাষা বিভাগে স্থায়ী শিক্ষক নিয়োগের বিষয়ে পরিকল্পনার কথাও জানান।
ভারতীয় হাই কমিশনার হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং ভারতের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে যৌথ শিক্ষা ও গবেষণা প্রকল্প পরিচালিত হচ্ছে। উভয় দেশের মধ্যে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও গবেষক বিনিময় কার্যক্রমও চলছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চলমান হিন্দি ভাষা কোর্সের উন্নয়নে ভারতের সার্বিক সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।
[এমকে]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘কোটার কারণে দেশের মেধাবীরা আজ বিপন্ন’

১০০০০০ অবৈধ বাংলাদেশিকে ফেরাতে প্রণোদনা দেবে ইইউ

ট্রাম্প প্রশাসন আটকে গেছে

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে গুলিতে নিহত ১

মেয়র আইভী আশঙ্কামুক্ত

নেপথ্যে কোটি টাকার চাঁদাবাজি

উপযুক্ত সময়ে নির্বাচনকালীন সরকারের রূপরেখা ঘোষণা

সহায়ক সরকারে বিএনপির অংশগ্রহণ থাকবে না

তিনি তখন টেলিফোন অন রাখতেন

টঙ্গীমুখী মানুষের স্রোত

‘চোখের সামনে বাবাকে মরতে দেখেছি বাঁচাতে পারিনি’

ওটা যেন আমার মৃত্যু পরোয়ানা ছিল

ভালো নেই বৃক্ষমানব মুক্তামণির পরিবারও দুশ্চিন্তায়

সিলেট-৩ আসনে মনোনয়ন আদায় করে ছাড়ব

‘সহায়ক সরকারে বিএনপির অংশগ্রহণ থাকবে না’

কারাবন্দি বাবাকে দেখে ফেরার পথে প্রাণ গেল ছেলের